বিস্তারিত

৩০ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ টলিউডের সমস্ত শ্যুটিং

ছবি : সংগ্রহকৃত

৩১ মার্চ পর্যন্ত রাজ্যের সমস্ত সিনেমা হল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেন হল মালিকরা। বন্ধ থাকছে থিয়েটার হলও। পিছিয়ে গিয়েছে যাবতীয় সিনেমা, ওয়েব সিরিজ, রিয়্যালিটি শোয়ের শ্যুটিং। সকলেরই প্রশ্ন ছিল সিরিয়ালের শ্যুটিং নিয়ে। মঙ্গলবার টালিগঞ্জের কলাকুশলী ও প্রযোজকদের সঙ্গে নন্দনে বৈঠক করেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস।

এরপরই তাঁরা সকলে সিদ্ধান্ত নেন ধারাবাহিকের শ্যুটিং বন্ধ রাখার। এই মুহূর্তে সকলের সুস্থ থাকাটাই তাঁদের কাছে কাম্য। মুখ্যমন্ত্রীর পরবর্তী নির্দেশের পর তাঁরা জানাবেন কবে থেকে শ্যুটিং শুরু করা যেতে পারে। আপাতত ব্যংকিং না থাকায় পুরনো এপিসোডই টেলিকাস্ট করা হবে।

মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস বললেন, সবার সঙ্গে কথা বলেই আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বুধবার থেকে ৩০ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ থাকছে যাবতীয় ধারাবাহিকের শ্যুটিং। সবার আগে মানুষের স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষা।

ওয়েস্ট বেঙ্গল অ্যাসোসিয়েশন অফ টেলিভিশন প্রোডিউসারের প্রেসিডেন্ট শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, যাঁরা বাইরে শ্যুটিং করতে গিয়েছেন প্রত্যেককেই ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সাংবাদিকদের অনেকেই টেলিভিশনের ক্ষতি এবং টেকনিশিয়নদের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। সেই প্রশ্নের উত্তরে প্রযোজক রাজ চক্রবর্তী, অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায় জানান, এই মুহূর্তে বিশ্ব অর্থনীতি নিম্নগামী। মন্দার ছাপ সর্বত্র। কাজেই আমরাও নিশ্চয় অর্থনৈতিক ক্ষতির মুখে পড়ব। কিন্তু সবার আগে মানুষের শরীর। আমরা সকলের সুরক্ষা এবং স্বাস্থ্য নিয়েই ভাবছি।

আজকের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস সহ ইম্পার প্রেসিডেন্ট পিয়া সেনগুপ্ত, আর্টিস্ট ফোরাম এবং প্রোডিউসার্স গিল্ড। ১৯ মার্চ থেকে মুম্বইতে বন্ধ যাবতীয় সিরিয়াল-সিনেমা-ওয়েব সিরিজের শ্যুটিং। ৩১ মার্চ পর্যন্ত তা বন্ধ থাকছে। মঙ্গলবার করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয় মহারাষ্ট্রে। এরপরই মহারাষ্ট্রের যাবতীয় সরকারি অফিস বন্ধেরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক