বিস্তারিত

২০ শিশু ও কয়েকজন মহিলাকে পণবন্দি

ছবি : সংগ্রহকৃত

উত্তরপ্রদেশের ফারুকাবাদে এক যুবক মেয়ের জন্মদিনের মিথ্যা নিমন্ত্রণ করে ২০ শিশু এবং কয়েকজন মহিলাকে পণবন্দি করল। পণবন্দি শিশু ও মহিলাদের উদ্ধারে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন পুলিশকর্মীরাও। পুলিশকে লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়ে অভিযুক্ত যুবক। পণবন্দি শিশু ও মহিলাদের উদ্ধারে অভিযান চলছে। এমন আকস্মিক ঘটনায় গ্রামে আতঙ্কের পরিবেশ দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, দু’বছর বয়সী মেয়ের জন্মদিনের ভুয়ো নিমন্ত্রণ করে বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ৩টায় করথিয়া গ্রামের অন্তত ২০ শিশুকে বাড়িতে ডেকে আনে ‘সুভাষ বাথম’ নামে এক যুবক। এ ছাড়া গ্রামের কয়েকজন মহিলাও তার বাড়িতে ‘জন্মদিনের অনুষ্ঠানে’ গিয়েছিলেন। এর পরে সুযোগ বুঝে আমন্ত্রিত শিশু এবং মহিলাদের একটি ঘরে বন্দি করে সুভাষ। এ দিকে, কয়েক ঘণ্টা পেরিয়ে যাওয়ার পরেও শিশু ও মহিলারা বাড়ি না ফেরায় গ্রামের কয়েক জন পুরুষ অভিযুক্তের বাড়ি গিয়েছিলেন। তাঁদের দেখে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে অভিযুক্ত ব্যক্তি। ভয়ে লোকজন সেখান থেকে পালিয়ে যান।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে স্থানীয় থানার পুলিশ। পুলিশকর্মীরা সুভাষের বাড়ির কাছে পৌঁছতেই ফের পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। বাড়ির ভেতর থেকে দেশি বোমা ছুঁড়তে শুরু করে অভিযুক্ত। বোমার আঘাতে ৩ পুলিশকর্মী জখম হন। তাঁদের হাসতাপালে ভরতি করা হয়েছ। এর পরে পার্শ্ববর্তী কয়েকটি থানা থেকে বিশাল বাহিনী ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছছে। বাড়িটি ঘিরে রাখা হয়েছে। পণবন্দি শিশু ও মহিলাদের উদ্ধারকাজ চলছে।

সংবাদের ধরন : আন্তর্জাতিক নিউজ : নিউজ ডেস্ক