বিস্তারিত

সব ধরনের ব্যাংক বন্ধ থাকবে

ছবি : সংগ্রহকৃত

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে সরকারের বিধিনিষেধের আওতায় আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত সব ধরনের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। তবে এটিএম ও ইন্টারনেট ব্যাংকিং সেবা চালু থাকবে। আজ সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, সমুদ্র, স্থল ও বিমানবন্দর এলাকায় (পোর্ট ও কাস্টমস) অবস্থিত ব্যাংকের শাখা/উপশাখা/বুথসমূহ খোলার বিষয়ে বন্দর/কাস্টমস কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনাক্রমে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। উক্ত ব্যাংকিং সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে স্ব স্ব ব্যাংক প্রয়োজনীয়তার নিরিখে সংশ্লিষ্ট অনুমোদিত ডিলার (এডি) শাখা এবং প্রধান কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগ সীমিত সংখ্যক জনবল দ্বারা খোলা রাখতে পারবে।

এটিএম ও কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন চালু রাখার সুবিধার্থে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সহায়তায় এটিএম বুথগুলোতে পর্যাপ্ত নোট সরবরাহসহ প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ইন্টারনেট ব্যাংকিং সুবিধা সার্বক্ষণিক চালু রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। ব্যাংকের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে নিজ নিজ কর্মস্থলে অবস্থান করতে হবে।

এদিকে ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত চলাচলে বিধিনিষেধ দিয়ে আজই প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকারের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ১৪ এপ্রিল থেকে বন্ধ থাকবে সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠানসহ শপিংমল ও দোকানপাট। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা থাকবে শিল্প-কারখানা। পণ্য ও জরুরি সেবা ছাড়া সব পরিবহণ বন্ধ থাকবে। এ ছাড়া সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত উম্মুক্ত স্থানে কাঁচা বাজার খোলা থাকবে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়েছে, সকল সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্বশাসিত ও বেসরকারি অফিস/আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ও সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী নিজ নিজ কর্মস্থলে অবস্থান করবেন। তবে, বিমান, সমুদ্র, নৌ ও স্থলবন্দর এবং তৎসংশ্লিষ্ট অফিসসমূহ এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বহির্ভূত থাকবে।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক