বিস্তারিত

সন্ধ্যায় নীর‌বে দাফন কর‌লেন জীবনসঙ্গিনীকে

ছবি : সংগ্রহকৃত

গত শ‌নিবার মোহাম্মদপু‌রের নজরুল রো‌ডে ক‌রোনা উপসর্গ নি‌য়ে মারা যান রা‌বেয়া আক্তার নামের ৫০বছর বয়সী এক নারী। জ্বর ও সর্দি থাকা এই নারীর মৃত্যুর পর তাকে খিলগাঁও তালতলা কবরস্থা‌নে দাফন করা হ‌য়ে‌ছে। গতকাল সন্ধ্যায় তা‌কে দাফন করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ব‌লেন, তখন সন্ধ্যা ছয়টা বাজ‌বে। তালতলা কবরস্থানে দুটি অ্যাম্বুলেন্স আসে। অ্যাম্বুলেন্স দুটি কবরস্থানের শেষ মাথায় ঝিলপাড়ের শেষ প্রা‌ন্তে গি‌য়ে থা‌মে। একটি অ্যাম্বুলেন্স থেকে নামেন পাঁচ ব্যক্তি।
তাদের প্রত্যেকের পরনে ছিল ব্যক্তিগত সুরক্ষার সরঞ্জাম। তারা প্রথম অ্যাম্বুলেন্স থেকে একটি স্ট্রেচারে করে সাদা কাফনে মোড়ানো লাশটি নামান। এরপর কবরস্থানের ইমাম ও উপস্থিত আটজন মিলে জানাজা পড়েন। কবর দেন।

জানা‌গে‌ছে, মৃত ব্য‌ক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয় বলে সন্দেহ করছেন স্বজনরা। তাই এমন দাফন কর‌তে বাধ্য হ‌য়ে‌ছে তারা। প্রদক্ষদর্শীরা জানান, দাফনে অংশ নেয়া ওই পাঁচজন কবরস্থানের ঝিলের পাড়ে এসে পিপিই খুলে ফেলেন। পিপিইগুলোতে আগুন ধরিয়ে দিয়ে তা নষ্ট করেন তারা।
এর ম‌ধ্যেই ফেসবুকে এই দাফনের ৯ মি‌নি‌টের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে।

এ‌দি‌কে জানা যায়, মৃত ব্য‌ক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কি না, তা এখনও জানতে পারেননি ওই প‌রিবা‌রের স্বজনরা। ত‌বে ওই নারী ক‌য়েক‌দিন ধ‌রেই সর্দি, জ্বর, শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। তবে হাসপাতালে নেয়া হয়‌নি ওই ম‌হিলা‌কে।

প‌রিবার সূ‌ত্রে জানা গে‌ছে, জানানো হলে গতকাল সকাল এগা‌রোটায় তা‌দের মোহাম্মদপুরের বাসায় এসে নমুনা নিয়েছে। তবে পরীক্ষার ফল এখনও পাওয়া যায়নি।

উ‌ল্লেখ্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা গেলে তাঁকে খিলগাঁওয়ের তালতলা কবরস্থানে দাফনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক