বিস্তারিত

শাবানার সন্তানদের বর্তমান অবস্থা

ছবি : সংগ্রহকৃত

গত ২৭ ডিসেম্বর ব্যাক্তিগত কাজে বাংলাদেশে এসেছেন শাবানা। থাকবেন চলতি মাসের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত। চলচ্চিত্রের ৩৬ বছরের সোনালী ক্যারিয়ার ছেড়ে বিদেশে পাড়ি জমিয়েছেন শাবানা। স্বামী-সন্তান নিয়ে তার ঠিকানা এখন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি।

শাবানার ব্যক্তিগত বিষয়ের চেয়ে সন্তানদের বর্তমান অবস্থা নিয়ে বেশি আগ্রহ দেখা গেছে গণমাধ্যম কর্মীদের। কারণ ১৯৯৯ সালে তিনি যখন চলচ্চিত্রকে গুডবাই জানিয়ে স্বামি ওয়াহিদ সাদিকের সাথে যুক্তরাষ্ট্রে পারি জমান তখন ভক্তদের কাছে বলে ছিলেন, সন্তাদের ভবিষতের জন্যই দেশে ছেড়ে যাওয়া।

তাই এখন তার সন্তানরা কে কি করছেন, সে ব্যপারে আগ্রহ থাকাটাই স্বাভাবিক। শাবানা বলেন, বড় মেয়ে ফারহানা সাদিক সুমি এমবিএ, সিপিএ পাস করে আগে চাকরি করতো। পরে তার দুই বাচ্চাকে দেখাশোনার জন্য চাকরি ছেড়ে দিয়েছে।

ছোট মেয়ে সাবরিনা সাদিক বিশ্বখ্যাত ইয়েল ও হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি থেকে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়ে বর্তমানে শিকাগোর হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষকতা করছেন। একমাত্র ছেলে শাহীন সাদিক নিউজার্সির রাদগার্স ইউনিভার্সিটি থেকে বিবিএ সম্পন্ন করে এখন সেখানকার স্বনামধন্য ব্লুমবার্ড কোম্পানিতে কর্মরত।

গেল দুইদশক ধরে শাবানা প্রবাসী জীবনযাপন করলেও ঢাকাই চলচ্চিত্রের দর্শকরা তাকে ভোলেনি। কোটি ভক্তদের মনের আসনে রানী হয়ে আছেন শাবানা। মাত্র আট বছর বয়সে সিনেমায় নাম লেখান আফরোজ সুলতানা রত্না ওরফে শাবানা। এহতেশাম পরিচালিত ‘নতুন সুর’ নামের ছবিতে তিনি শিশুশিল্পী হিসেবে কাজ করেন। এরপর ‘চকোরী’ ছবিতে নায়িকা চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন শাবানা। এরপর গড়েছেন একের পর এক ইতিহাস।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক