বিস্তারিত

রোনালদোর জোড়া গোলে বার্সার পরেই রিয়াল

ছবি : সংগ্রহকৃত

শনিবার সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে ৪-২ গোলে জেতে রিয়াল। নিজেদের মাঠে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে তাদের এটা টানা অষ্টম জয়।

ঘরের মাঠে গত সাত ম্যাচে ৪১ গোল করার আত্মবিশ্বাসে মাঠে নামা রিয়ালের শুরুটাও হয় দারুণ। তৃতীয় মিনিটে করিম বেনজেমার বাড়ানো বল ধরে ডি বক্সে ঢুকে এক বাঁ পায়ের টোকায় এক ডিফেন্ডারবে ফাঁকি দিয়ে কোনাকুনি শটে দলকে এগিয়ে দেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো।

শুরুতেই এগিয়ে যাওয়ার আনন্দ অবশ্য বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি রিয়ালের। সাত মিনিট বাদেই রাফায়েল ভারানের ভুলে সমতায় ফেরে বিলবাও। গোলরক্ষককে বল বাড়িয়েছিলেন ফরাসি এই ডিফেন্ডার। কেইলর নাভাস তা বিপদমুক্ত করার সুযোগ পাননি; ছুটে এসে সহজেই বল জালে জড়ান স্প্যানিশ মিডফিল্ডার হাভিয়ের এরাসো।

২৭তম মিনিটে এগিয়েও যেতে পারতো বিলবাও; কিন্তু স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড আরিৎস আদুরিসের শট ক্রসবারে লাগলে বেঁচে যায় স্বাগতিকরা।

৩৭তম মিনিটে হামেস রদ্রিগেসের চমৎকার এক গোলে ফের এগিয়ে যায় রিয়াল। ২৫ গজ দূর থেকে দারুণ বাঁকানো এক শটে বাঁ পোস্ট দিয়ে বল জালে জড়ান কলম্বিয়ার এই মিডফিল্ডার।

আর বিরতির ঠিক আগে স্কোরলাইন ৩-১ করে জয় প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেন টনি ক্রুস। রোনালদোর পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে শরীরটাকে ঘুরিয়ে নিচু শটে বল জড়ান এই জার্মান মিডফিল্ডার।

৫৩তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়াতে পারতেন রোনালদো। তার ফ্রি-কিক দেয়ালে লেগে ফেরার পর শট নিয়েছিলেন পর্তুগিজ তারকা, যা ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক।

৬৮তম মিনিটে ব্যবধান কমানোর সুযোগ পেয়েছিল বিলবাও, তবে গোলরক্ষক নাভাস দ্রুত এগিয়ে গিয়ে ডি বক্সে ঢুকে পড়া আদুরিসের পা থেকে বল বিপদমুক্ত করেন।

৮৩তম মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে ভারানে মাঠ ছাড়লে ১০ জনের দলে পরিণত হয় রিয়াল। তবে তাতে দলটির জয়ের পথে কোনো বাধা হয়নি।

এর চার মিনিট বাদে নিজের দ্বিতীয় গোলে স্কোরলাইন ৪-১ করে সহজ জয় নিশ্চিত করেন রোনালদো। বদলি নামা স্প্যানিশ মিডফিল্ডার লুকাস ভাসকেসের উচু করে বাড়ানো বল ডি বক্সের মধ্যে বুক দিয়ে নামিয়ে এক জনের বাধা এড়িয়ে লক্ষ্যভেদ করেন তিনবারের বর্ষসেরা এই ফুটবলার।

এবারের লিগে রোনালদোর এটি ২১তম গোল। গোলদাতার তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা বার্সেলোনার স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেসের গোল ২০টি।

শেষ দিকে দারুণ এক হেডে হারের ব্যবধান কমান স্পেনের মিডফিল্ডার এলুসতোন্দো উর্কিয়োলা।

এই জয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা রিয়ালের পয়েন্ট হলো ২৪ ম্যাচে ৫৩। তিন নম্বরে থাকা আতলেতিকোর পয়েন্ট ৫১, তবে একটি ম্যাচ কম খেলেছে তারা।

শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার পয়েন্ট ৫৪, দুই ম্যাচ কম খেলেছে লুইস এনরিকের দল।

সংবাদের ধরন : খেলা-ধুলা নিউজ : মো : মাহবুব রানা