বিস্তারিত

বিশ্ব নেতাদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও বার্তা

ছবি : সংগ্রহকৃত

করোনা শিখিয়েছে বিশ্বে একা চলার সুযোগ নেই। সম্মিলিত পদক্ষেপের মাধ্যমেই কেবল মহামারি মোকাবিলা করা সম্ভব বলে বিশ্বসভায় মত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি মোকাবিলায় বার্ষিক একশ বিলিয়ন ডলার তহবিল নিশ্চিত করাসহ পরিবেশ রক্ষায় ৪ দফা প্রস্তাব তুলে ধরেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) সন্ধ্যায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের আমন্ত্রণে ‘লিডার্স সামিট অন ক্লাইমেট’ এর ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা এই প্রস্তাব তুলে ধরেন। বিশ্বের ৪০ দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান এই ভার্চুয়াল সামিটে অংশ নেন।

দিনদিন আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা। বিশ্বের ধনী-সম্পদশালী দেশগুলোর শিল্পায়নে যথেচ্ছ কার্বন নিঃসরণে উষ্ণতা বাড়ছে পৃথিবীর। প্রতিবছর বন্যা, জলোচ্ছ্বাস আর তীব্র খরার মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ পোহাতে হচ্ছে বাংলাদেশের মতো দেশগুলোকে। এসব ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে অন্যের মুখাপেক্ষী না হয়ে বাংলাদেশ নিজেদের অর্থেই গড়ে তুলেছে জলবায়ু তহবিল।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সীমিত সম্পদ নিয়েই লড়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে পরিবেশের ঝুঁকি আরও বেড়েছে উল্লেখ করে জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি প্রশমনে চার দফা উত্থাপন করেন শেখ হাসিনা।

মুজিববর্ষে সারা দেশে ৩০ মিলিয়ন গাছ লাগানোর উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

দুই দিনের এই ভার্চুয়াল সম্মেলনের প্রথম দিনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কামালা হ্যারিসের বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় উদ্বোধনী আয়োজনের আনুষ্ঠানিকতা।

যে ৩৯ জন রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানের শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে তাদের মধ্যে রয়েছেন-সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো, সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট শেখ খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান, আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট আলবার্তো ফার্নান্দেজ, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা, ইতালিয়ান প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন, নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জ্যাসিন্ডা আরডার্ন এবং স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ।পাশাপাশি ইউরোপীয় কাউন্সিল প্রেসিডেন্ট চার্লস মিশেলের ভার্চুয়ালি যোগদানের কথা রয়েছে।

সংবাদের ধরন : শিরোনাম নিউজ : নিউজ ডেস্ক