বিস্তারিত

বরিশালে ৯০ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে

ছবি : সংগ্রহকৃত

মঙ্গলবার বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের সহকারী পরিচালক ডা. শ্যামল কৃষ্ণ মন্ডল জানান, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে বরিশালে বিভাগের প্রবাস ফেরত ৯০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এর মধ্যে বরিশালে ২৬ জন, ভোলায় ৬ জন, পিরোজপুরে ১৯ জন, পটুয়াখালীতে ২১ জন, বরগুনায় ৮ জন এবং ঝালকাঠিতে ১০ জনকে তাদের নিজ নিজ হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

তারা কেউ-ই করোনা আক্রান্ত নয় এবং কারোর শরীরে করোনার কোনো উপসর্গও পাওয়া যায়নি। তবে সাবধানতা অবলম্বনের জন্য তাদের হোম কোয়ারেন্টাইন করা হচ্ছে।

এদিকে বরিশাল জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনের সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে। গত সোমবার বরিশাল জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিল ২০ জন। ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিল ২৬ জন।

বরিশালের সিভিল সার্জন ডা. মো. মনোয়ার হোসেন জানান, আগে বিদেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের তালিকা না পাওয়ায় তাদের খুঁজে পেতে সমস্যা হতো। এখন পুলিশের বিশেষ শাখা এবং স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক কার্যালয় থেকে প্রতিদিন বিদেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের তালিকা পাচ্ছেন। সেই তালিকা প্রতিটি উপজেলায় পাঠিয়ে দেয়া হয়। উপজেলা পর্যায়ের মাঠ কর্মীরা বিদেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করার চেষ্টা করছেন।

করোনার প্রভাব থেকে মুক্ত থাকতে স্বাস্থ্য অধিপ্তরের নির্দেশনা মেনে চলার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান বরিশালের সিভিল সার্জন।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক