বিস্তারিত

বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণের জন্য হাহাকার চলছে

ছবি : সংগ্রহকৃত

বন্যা পরিস্থিতির অপরিবর্তিত রয়েছে। জেলার পুরাতন ব্রহ্মপুত্রসহ অন্যান্য নদ-নদীর পানি কমতে শুরু করেছে।
তবে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণের জন্য হাহাকার চলছে। জনপ্রতিনিধিরা জানিয়েছে সরকারিভাবে যতটুকু ত্রাণ দেওয়া হচ্ছে, তা অত্যন্ত অপ্রতুল।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, বন্যার্তরা দিনব্যাপী নদীর তীরে এবং উঁচু স্থানে বা পানির মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকছে ত্রাণের আশায়। কোন একটি নৌকা বা ট্রলার দেখলেই পানি ভেঙ্গে ছুটে আসছে কেউ ত্রাণ নিয়ে আসছে কি-না, তা দেখতে। এদিকে সদর উপজেলার বন্যা দুর্গত এলাকায় প্রতিদিনই আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির পক্ষে ত্রাণ তৎপরতা শুরু হওয়ায় কিছুটা স্বস্তি ফিরে এসেছে। তবে সরকারিভাবে উল্লেখ্যযোগ্য ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে না বলে জানালেন বানভাসিরা।

জেলায় বন্যায় এ পর্যন্ত সম্পূর্ণ রূপে ২০২০ হেক্টর ও আংশিকভাবে ১৫৭০ হেক্টর জমি’র রোপা আমন এবং প্রায় ৫ শতাদিক হেক্টর জমি’র সব্জীর ক্ষেত পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে।

 

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক