বিস্তারিত

প্রমাণ পেলে সম্রাটের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি : সংগ্রহকৃত

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, যাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির সাক্ষ্যপ্রমাণ পাওয়া যাবে তাদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেয়া হবে, সে যে দলের বা সংস্থার লোক হোক না কেন, কেউ বাদ যাবে না।

দুর্নীতি বা অপকর্মের তথ্য প্রমাণ পেলে যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শাখার সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠান শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অবৈধ ব্যবসা, অনৈতিক কাজ, টেন্ডারবাজি যেটাই করুক তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। আমরা যার বিরুদ্ধে উপযুক্ত প্রমাণ পাব তার বিরুদ্ধেই আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই এ অভিযান চলছে।

দুর্নীতি ও বিভিন্ন অপকর্মের সঙ্গে যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন সম্রাটের নাম গণমাধ্যমে আসছে এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা যার (সম্রাট) নাম বলছেন, সে ছাড়াও আমাদের সরকারের অন্য কেউ কোনো অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়ালে তার বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আমরা কাউকে ছাড়ছি না। যার বিরুদ্ধে অভিযোগ পাব তাকেই আইনের আওতায় নিয়ে আসব।

সম্প্রতি আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুবলীগের কিছু নেতার অপকর্মের কথা উল্লেখ করে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তাদের মধ্যে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট, সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভুঁইয়ার নাম ছিল। এরইমধ্যে খালেদ মাহমুদ ভুঁইয়ার মালিকানাধীন অবৈধ ক্যাসিনোয় অভিযানের পর তাকে গ্রেফতার করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। বর্তমানে ৩টি মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডে রয়েছেন তিনি।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক