বিস্তারিত

দিল্লি নিয়ে রাষ্ট্রপতির দ্বারে সনিয়া গান্ধী

ছবি : সংগ্রহকৃত

দিল্লির হিংসার ঘটনায় নীরব দর্শক কেন্দ্র ও দিল্লি সরকার। এই ভাষাতেই নরেন্দ্র মোদী সরকার ও অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী। এ দিন দিল্লির ঘটনা নিয়ে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে স্মারকলিপি জমা দেয় কংগ্রেস।

কর্তব্য পালন ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থতার কারণে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে পদত্যাগ করতে বলুন রাষ্ট্রপতি। রাম নাথ কোবিন্দের কাছে এই দাবিতেই দরবার করেছে কংগ্রেস।

বৃহস্পতিবার রাইসিনা হিলসে স্মারকলিপি জমা দেওয়ার পর সনিয়া বলেন, দুটো কথা স্পষ্ট করে জানিয়েছি রাষ্ট্রপতিকে। দেশের মানুষের নিরাপত্তা যেন সুনিশ্চিত থাকে। কারও যেন প্রাণ না-যায়। আর দ্বিতীয়ত দিল্লিতে হিংসার ঘটনা রুখতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ পুরোপুরি ব্যর্থ। তাঁকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদ থেকে অবিলম্বে সরানো হোক। রাষ্ট্রপতিকে বলেছি, তিনি যেন সরকারকে বলেন রাজধর্ম পালন করতে।

সনিয়া গান্ধীর ছাড়াও কংগ্রেসের প্রতিনিধি দলে ছিলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ, প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম, রাজ্যসভায় বিরোধী দলনেতা গুলাম নবি আজাদ, প্রিয়ঙ্কা গান্ধী প্রমুখ। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দিল্লিতে গত চারদিন ধরে যা চলছে তা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। গোটা দেশের জন্য লজ্জা। ৩৪ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে, দু’শ জনেরও বেশি মানুষ আহত। কেন্দ্রীয় সরকার যে পুরোপুরি ব্যর্থ, এই ঘটনাতেই তা স্পষ্ট।

দিল্লির ঘটনার জন্য কেন্দ্র ও দিল্লি সরকারকে একযোগে দায়ী করেছিল কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি। দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি এস মুরলীধরের বদলি নিয়ে সরব হয়েছিলেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বডরা।

সংবাদের ধরন : আন্তর্জাতিক নিউজ : নিউজ ডেস্ক