বিস্তারিত

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে দুরন্ত জয় ইংল্যান্ডের

bangla newspaper ছবি : সংগ্রহকৃত

ছয় বলে ইংল্যান্ডের জয়ের জন্য তখন দরকার মাত্র এক রান। এমন অবস্থায় ওভারের প্রথম দুই বলে প্রথমে বাউন্ডারিতে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন জর্ডন ও দ্বিতীয় বলে রান আউট উইলি। তৃতীয় বলে রান নিতে গিয়েও ফিরতে হল। ভাগ্যিস ফিল্ডারের থ্রোটা উইকেটে লাগেনি। উত্তেজনার পারদ চড়িয়ে চতুর্থ বলে এল ইংল্যান্ডের জয়ের রান। টস জিতে প্রথমে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাট করতে পাঠানোর পর যখন ২৩০ রানের বিশাল টার্গেট এল সামনে তখনও হয়তো ব্রিটিশ অধিনায়ক ভেবেছিলেন সিদ্ধান্তটা ভুল হয়ে গেল। কিন্তু সব হিসেব বদলে দিয়ে দুই বল বাকি থাকতেই ২৩০ রান তুলে নিল ইংল্যান্ড। দক্ষিণ আফ্রিকা এর পর ভাবতেই পারে রানটা আর একটু বেশি হলে হয়তো ভাল হত। কিন্তু টি২০তে এটা বেশ বেশিই রান।

প্রথমে ব্যাট করে দক্ষিণ আফ্রিকার হাশিম আমলা ও কুইন্টন দে কুকের হাফ সেঞ্চুরিতেই বড় রানের আভাস ছিল। শেষ কাজটি করে যায় ডুমিনির হাফ সেঞ্চুরি। চার উইকেট হারিয়ে নির্ধারিত ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকা শেষ করে ২২৯ রানে। ইংল্যান্ডের বোলাররা সাফল্য না পেলেও ব্যাট হাতে বাজিমাত জেসন রয়, জো রুটদের। ৪৩ রান করে শুরুটা করে দিয়েছিলেন রয়। ৮৩ রান করে শেষ করলেন রুট। ১৯তম ওভারেই ২২৯ রান ছুয়ে ফেলেছিল ইংল্যান্ড। শেষ ওভারে দু’বল বাকি থাকতে জয়ের এক রান তুলে নিলেন মইন আলি। ম্যাচের সেরা জো রুট।

সংবাদের ধরন : খেলা-ধুলা নিউজ : স্টাফ রিপোর্টার