বিস্তারিত

তৃণমূলের আন্দোলন সরকারের পক্ষে সামাল দেওয়া কঠিন: মাহবুব

ছবি : সংগ্রহকৃত

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, ‘তৃণমূলের এই নির্বাচনে যদি আওয়ামী লীগ সন্ত্রাসীরা বা আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বা পুলিশ বাহিনী হস্তক্ষেপ করে, তাহলে তৃণমূলে যে বিরাট একটা আন্দোলন শুরু হবে, সেটাকে সরকারের পক্ষে সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না।’
পৌর নির্বাচনে সরকার ও ক্ষমতাসীনদের অনিয়মের অভিযোগ তুলে শুক্রবার এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হবে ‘কঠিন নির্বাচন’।
বিএনপি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে এলেও প্রথমবারের মতো চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়নে ভোটের আয়োজন হওয়ায় সরকারের সমালোচনা করে আসছেন দলটির নেতারা।
এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্ট বারের সভাপতি খন্দকার মাহবুব বলেন, ‘দলীয় প্রতীকে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সরকারের ষড়যন্ত্রমূলক সিদ্ধান্ত। আওয়ামী লীগ বিশ্ববাসীকে দেখাতে চায়, দেখো- সারা বাংলাদেশে নৌকার জয়জয়াকার। কিন্তু দেশের মানুষ ও বিশ্ববাসীকে এভাবে ধোঁকা দেওয়া সম্ভব নয়।’
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা মামলার’ প্রতিবাদে ‘জাতীয়তাবাদী প্রত্যাগত প্রবাসী দলের’ উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবে এই আলোচনা সভা হয়।
খালেদার উপদেষ্টা খন্দকার মাহবুব অনুষ্ঠানে দাবি করেন, সারাদেশে তাদের ৫০ লাখ নেতা-কর্মী ‘জুলুমের মধ্যে’ আছেন। দিনের পর দিন তাদের ‘মিথ্যা মামলায়’ আদালতে হাজিরা দিতে হচ্ছে।
বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘এই সরকার মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করবে না; বরং আরও মামলা দেবে। আমি মনে করি, এ থেকে উত্তরণের একমাত্র পথ- আসুন এ সরকার যাতে ক্ষমতা থেকে বিদায় নেয়, সেজন্য ঐক্যবদ্ধ হোন। অতীতের ইতিহাস দেখুন; আন্দোলন ছাড়া, রক্ত ছাড়া কোনো আন্দোলন সফল হয়নি। আমাদেরও আন্দোলনে যেতে হবে।’
সরকার ‘মামলা-হামলা দিয়ে বিএনপিকে ধ্বংস করে’ দিতে চাইলেও তা সম্ভব হবে না’ বলে মন্তব্য করেন তিনি।
নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে খন্দকার মাহবুব বলেন, ‘জাতীয়তাবাদী শক্তিকে নিয়মতান্ত্রিক পথে আন্দোলন করে এই স্বৈরশাসককে বিদায় করতে হবে। আসুন ঐক্যবদ্ধভাবে আমরা মাঠে নামি। প্রয়োজনে বুলেটকে উপেক্ষা করে রাস্তায় নামুন। একবার যদি আমরা সাহস করে নামি, লাখো জনতার ঢল নামবে। বেগম জিয়ার নেতৃত্বে সবকিছু চুরমার, সব কিছু ধুয়ে মুছে যাবে।’
সংগঠনের সভাপতি এস এম সোহরাব হোসেনের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আহমেদ আজম খান, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সহ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, সহ স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক এ বি এম মোশাররফ হোসেন, প্রত্যাগত প্রবাসী দলের সাংগঠনিক সম্পাদক তরিকুল ইসলাম তারেক বক্তব্য দেন।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : স্টাফ রিপোর্টার