বিস্তারিত

জামালপুর ও শিবগঞ্জে বজ্রপাতে ৯ জনের মৃত্যু

ছবি : সংগ্রহকৃত

জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলায় বজ্রপাতে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে অন্তত চারজন। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ ও নাচোল উপজেলায় পৃথক পৃথক বজ্রপাতে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

জামালপুরে নিহত ব্যক্তিরা হলেন ইসলামপুরের পাথর্শী ইউনিয়নের গামাড়িয়া গ্রামের হাসান সেকের ছেলে কালাম সেক (৫০), মহিষবাথান গ্রামের বারু সেকের ছেলে শাহজাহান (৩০), জারুলতলা গ্রামের জব্বার খানের ছেলে এনামুল হক (২৮), গাইবান্ধা ইউনিয়নের চন্দনপুর গ্রামের আখের মাহমুদের ছেলে মফিজল হক (৪০), পলবান্ধা ইউনিয়নের দক্ষিণ বাটিকামারী গ্রামের মৃত চান্দু সেকের ছেলে জবেদ আলী ওরফে হেক্কু এবং সাপধরী ইউনিয়নের প্রজাপতি গ্রামের কুদ্দুস মোল্লার ছেলে বেলাল হোসেন (৩৫)।

ধানকাটার সময় বৃষ্টি শুরু হলে পাথর্শী ইউনিয়নের হলহলিয়া ব্রিজের নিচে আশ্রয় নেন ধানকাটা শ্রমিকেরা। এ সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই কালাম শেখ, শাহজাহান ও এনামুল হকের মৃত্যু হয়। এ সময় তিনজন গুরুতর আহত হলে তাঁদের ইসলামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

অপরদিকে গাইবান্ধা ইউনিয়নের চন্দনপুর গ্রামে মাঠে শুকাতে দেওয়া খড় আনতে গিয়ে বজ্রপাতে মৃত্যু হয় মফিজল হকের। এ সময় পলবান্ধা ইউনিয়নের দক্ষিণ বাটিকামারী গ্রামে বাড়ির উঠানে শুকাতে দেওয়া খড় তুলতে গিয়ে জবেদ আলীর মৃত্যু হয়। অন্যদিকে সাপধরী ইউনিয়নের প্রজাপতি গ্রামে মাঠে বাদাম তুলতে গিয়ে বজ্রপাতে মারা যান বেলাল হোসেন।

এ সময় বজ্রপাতে আহতরা হলেন পাথর্শী ইউনিয়নের জারুলতলা গ্রামের পানফুল বেগম (৫৮), সাপধরী ইউনিয়নের প্রজাপতি গ্রামের ইনসাফ আলী (৪৫), বেলাগাছা ইউনিয়নের ধনতলা গ্রামের রাজা মিয়া (৩৫) ও বেলাগাছা গ্রামের হামিদ (৩৫)।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে নিহত ব্যক্তিরা হলেন শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নের উপরটোলা গ্রামের আবদুস সাত্তারের ছেলে জালাল উদ্দিন (৪২) ও গোয়াবাড়ি চাঁদপুর গ্রামের আবু তালেবের স্ত্রী আজিরন বেগম রহিমা (২৫) এবং নাচোল উপজেলার কসবা ইউনিয়নের আঝইর গ্রামের ওবাইদুরের মেয়ে মারুফা খাতুন (১০)।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক