বিস্তারিত

খালেদের অস্ত্র ভাণ্ডারের খোঁজে অভিযান চালাচ্ছে র‌্যাব

ছবি : সংগ্রহকৃত

ক্যাসিনো কিং খালেদ হোসেন ভূঁইয়া তার সাম্রাজ্য ধরে রাখা ও বিস্তারের জন্য বিপুল পরিমাণের অস্ত্রের ভাণ্ডার গড়ে তুলেছিলেন।

সেই অস্ত্রের মধ্যে অত্যাধুনিক ৪টি একে-২২ রাইফেল, ১ টি একে-৪৭ ও প্রায় ৫০ টি ছোট বড় রিভলবার আছে বলে তিনি র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন। এসব অবৈধ অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে খালেদ টেন্ডারবাজি ও চাঁদাবাজি করতেন। বাইরে গেলে কোমরে তিনি সর্বক্ষণ একটি রিভলবার বহন করতেন। আর কারও কাছে চাঁদা দাবি বা বড় মাদকের চালান পাঠানোর সময় একে-২২ রাইফেল নিয়ে যেতেন। যাতে ভুক্তভোগী দ্রুত ভয় পেয়ে তাকে চাঁদা দিয়ে দেন।

যশোরের বেনাপোল ও অস্ত্রের নতুন হাট সিলেটের কানাইঘাট সীমান্ত থেকে অস্ত্র চোরাকারবারীদের কাছ থেকে এগুলো তিনি সংগ্রহ করেছেন। খালেদের অস্ত্রগুলো তার সহযোগী ও ঢাকার মাফিয়া নিয়ন্ত্রণকারী একাধিক ব্যক্তির কাছে রয়েছে। তারা এখন পলাতক। ওই অস্ত্রের ভান্ডারের খোঁজে সাঁড়াশি অভিযান চালাচ্ছে র‌্যাবের গোয়েন্দারা। দ্রুত ওইসব অস্ত্রগুলো উদ্ধার করা না গেলে আন্ডারওয়ার্ল্ডের কাছে চলে যেতে পারে বলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ধারনা। র‌্যাবের গোয়েন্দা বিভাগ থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক