বিস্তারিত

কোটা সংস্কার নেতা রাশেদ গ্রেপ্তার

ছবি : সংগ্রহকৃত

আজ রোববার সকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) উপকমিশনার বলেন, মিরপুর থেকে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা রাশেদ খানকে আটক করা হয়েছে। পরে তাঁকে শাহবাগ থানায় দায়ের করা তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

তবে আন্দোলনকারীদের সংগঠনের আহবায়ক হাসান আল মামুন দাবি করেন, আমাদের যুগ্ম আহবায়ক রাশেদ খান, মাহফুজ খান ও ইয়ামিন এ তিনজনকে মিরপুর ১৪ নম্বর সেকশনের ভাসানটেক বাজারের মজুমদার মোড়ের ১২ নম্বর বাসা থেকে আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় সাদা পোশাকের পুলিশ ছাড়াও পোশাকধারী পুলিশ ছিল।

তবে উপকমিশনার মাসুদুর রহমান শুধু রাশেদ খানকে গ্রেপ্তারের কথা স্বীকার করেছেন।

গ্রেপ্তারের আগে নিজের বাসা থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাইভে এসে রাশেদ খান ভয়ার্ত কণ্ঠে বলেন, আমাকে বাঁচান প্লিজ, আমাকে তুলে নিয়ে যাচ্ছে। আমাকে ধাওয়া দিয়েছে ডিবি পুলিশ। ভিডিওটি শেয়ার করুন। এর পর তিনি যেখান থেকে কথা বলছেন, সেই ঠিকানাও দেন।

গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের পূর্বঘোষিত সংবাদ সম্মেলনে বাধা দিয়ে ব্যাপক মারধর করা হয়। এতে ১০ জনের মতো আহত হন। আহতরা অভিযোগ করেছেন, হামলাকারীরা ছাত্রলীগের নেতাকর্মী।

এর পর পরই কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ অধিকার ছাত্র সংরক্ষণ পরিষদের পক্ষ থেকে ‘সংবাদ সম্মেলনে বাধা ও হামলা’র প্রতিবাদে আজ থেকে সব বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন এবং সারা দেশে বিক্ষোভ অবরোধ কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে আন্দোলনকারীদের সংগঠনের আহবায়ক হাসান আল মামুন বলেন, আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে তাঁদের কোনো কর্মসূচি নেই। আগামীকাল সোমবার পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি পালন করা হবে। সারা দেশে পতাকা মিছিল অনুষ্ঠিত হবে।

 

 

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক