বিস্তারিত

কুর্মিটোলায় সড়ক অবরোধ করেন ঢাবি ছাত্র-ছাত্রীরা

ছবি : সংগ্রহকৃত

রাজধানীর কুর্মিটোলায় সড়ক অবরোধ করেন ঢাবি ছাত্র-ছাত্রীরা। এতে বিমানবন্দর থেকে উত্তরাগামী যানবাহন চলাচল কিছু সময়ের জন্য বন্ধ হয়ে যায়। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। পরে রাজধানীর কুর্মিটোলার যে স্থানটিতে গতকাল এক ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন সেখানে মানববন্ধন করছেন ঢাবি ছাত্র-ছাত্রীরা।

রাজধানীর কুর্মিটোলায় সড়ক পাশের ফুটপাত ধরে অনেকটা জায়গা নির্জন। ঝোপঝাড় আর গাছের আড়ালে লুকিয়ে যেন অজানা বিপদের শঙ্কা। কয়েকটি স্থানে লাগানো আছে সতর্কতামূলক সাইনবোর্ড! নির্জন ফুটপাতে প্রায়ই ঘটে নানা অপরাধ।

বনানী থেকে শুরু করে এ মাইলখানেক সড়কে আগেও ঘটেছে অপরাধমূলক নানা কর্মকাণ্ড। সেই তালিকায় রয়েছে ২০১৬ সালে গারো তরুণী ধর্ষণ। রয়েছে পরের বছর কলেজপড়ুয়া এক শিক্ষার্থী লাঞ্ছনা। আর চুরি-ছিনতাই তো নিত্যদিনের ঘটনা। এসব বিবেচনায় এখান থেকে বাসস্টপ সরানোর দাবি জানিয়েছিলেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের দাবি, ওই জায়গায় সিসিটিভি বসাতে হবে। পুলিশ যেন সবসময় থাকে সে ব্যবস্থাও করতে হবে। অপরাধপ্রবণ এমন সব এলাকায় কড়া নিরাপত্তা টহলের দাবি নগরবাসীর।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের ওই ছাত্রী একটি হলের আবাসিক শিক্ষার্থী। গতকাল কুর্মিটোলায় বান্ধবীর বাসায় যেতে বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে ওই ছাত্রী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে ওঠেন। বাস থেকে তিনি নামার পর অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজন তাঁর মুখ চেপে ধরে। এতে তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। এরপর তাঁকে ধর্ষণ করা হয়। রাত ১০টার দিকে চেতনা ফেরার পর তিনি সিএনজিচালিত অটোরিকশা নিয়ে বান্ধবীর বাসায় যান। পরে রাত ১২টার দিকে ওই ছাত্রীকে ঢামেক হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করান তার সহপাঠীরা।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক