বিস্তারিত

কাতার বিশ্বকাপে ভক্তরা থাকবেন বেদুইন তাঁবুতে

bdnews,bd news,bangla news,bangla newspaper ,bangla news paper,bangla news 24,banglanews,bd news 24,bd news paper,all bangla news paper,all bangla newspaper, prothom-alo, bdnews24.com ছবি : সংগ্রহকৃত

কাতার-২০২২ বিশ্বকাপ ফুটবল দেখতে যাওয়া ভক্তদের হয়তো মরুভূমিতে বেদুইনদের মতো তাঁবুতে থাকতে হবে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।তারা বলছেন, কাতারে খেলা দেখতে যে পাঁচ লাখ সমর্থক ভিড় জমাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে তাদের স্টেডিয়ামগুলোর কাছাকাছি ক্যানভাসের তাঁবুতে থাকার ব্যবস্থা করতে হবে। খবর বিবিসির

বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা উদ্যোক্তাদের ৬০ হাজার থাকার ঘরের ব্যবস্থা করতে বলেছে। কিন্তু যেভাবে কাজ এগোচ্ছে তাতে ওই সময়ের মধ্যে তা তৈরি করা সম্ভব হবে না বলে এ ধরনের তাঁবু দিয়ে কাজ চালানোর বিষয়টি সক্রিয়ভাবে বিবেচনা করছেন উদ্যোক্তারা।

কাতার ওয়ার্ল্ড কাপ সুপ্রিম কমিটির একজন মুখপাত্র বলেন, ‘এই বিশ্বকাপের কেন্দ্রে রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের আতিথেয়তা ও বন্ধুত্বকে বিশ্বের সামনে তুলে ধরা আর সেটাতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আর সে কারণেই ভক্তদের আকাশের তারার নিচে তাঁবুতে থাকার বিষয়টা নিয়ে আমরা গুরুত্বের সঙ্গে ভাবছি ও বিষয়টি নিয়ে গবেষণাও চালাচ্ছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাঁবু একটা সৃজনশীল আইডিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের মরু সংস্কৃতির গুরুত্বপূর্ণ ঐতিহ্য। কাজেই ফিফার দাবি পূরণে এই ভাবনাকে কাজে রূপ দেওয়ার কথা আমরা গুরুত্বের সঙ্গে চিন্তাভাবনা করছি।’

ওই মুখপাত্র জানান, আরব ও সিরিয়ার মরু অঞ্চলে ঐতিহাসিকভাবে বেদুইনরা তাঁবু জীবনে অভ্যস্ত ছিলেন। কাতারের বহু সম্ভ্রান্ত পরিবার এখনও সেই ঐতিহ্য মেনে শীত মরশুমে তাঁবুতে সময় কাটান। তবে সেখানে থাকে বিদ্যুৎ ও খাবারের বন্দোবস্ত।

এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘বিশ্বকাপে এ ধরনের তাঁবু বানানো হলে সেখানেও বিদ্যুৎ ও খাওয়াদাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।’

উল্লেখ্য, কড়া গরমের কারণে কাতার বিশ্বকাপ জুন-জুলাই থেকে ডিসেম্বরে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

সংবাদের ধরন : খেলা-ধুলা নিউজ : স্টাফ রিপোর্টার