বিস্তারিত

ইসরাইলকে সমর্থন করলে ১০ বছরের জেল

ছবি : সংগ্রহকৃত

ইসরাইলকে বাস্তব জীবনে বা সোশ্যাল মিডিয়ায় সমর্থন করলে ১০ বছরের জেল ও ৫ হাজার দিনার জরিমানার ঘোষণা দিয়েছে কুয়েতি সরকার।

আর্ন্তজাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ব্যাংকিংখাতে বিনিয়োগকারী, উদ্যোক্তা ও ক্যাপিটল মার্কেটের উপদেষ্টা মীর মোহাম্মদ আলী খানের একটি টুইট পোস্টের বরাতে বুধবার এমন খবর দিয়েছে পাকিস্তানি গণমাধ্যম এমএমএননিউজ টিভি।

টুইটে তিনি কুয়েত সরকারকে অভিবাদন জানিয়ে লেখেন, দেশটি একটি আইন জারি করেছে, যাতে কেউ সামাজিকমাধ্যম ও বাস্তবজীবনে ইসরাইলকে সমর্থন করলে ১০ বছরের কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার দিরহাম জরিমানার মুখে পড়বে। তিনি পিটিআই সরকার প্রধান ইমরান খানকেও এমন একটি উদ্যোগ নিতে পরামর্শ দেন।

এর আগে ফিলিস্তিনি নাগরিকদের বৈধ অধিকারের সমর্থনে নিজের দৃঢ় অবস্থান ব্যক্ত করেছেন কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী সাবাহ খালেদ আল-হামাদ আল-সাবাহ।

সম্প্রতি ইসরাইল ফিলিস্তিনের জেরুসালেমে আল জাররাহ এলাকা দখলে নেওয়ার প্রচেষ্টা চালায়। এ নিয়ে সেখানকার ফিলিস্তিনি বাসিন্দাদের মধ্যে থেমে থেমে উত্তেজনা চলে আসছিল। গত ৭ মে পবিত্র মাহে রমজানের শেষ জুমা অর্থাৎ জুমাতুল বিদা আদায় করতে বিপুল সংখ্যক মুসল্লি আল আকসা মসজিদে সমবেত হলে ইসরাইলি বাহিনী তাদের ওপর হামলা চালায়। মসজিদে ঢুকে মুসল্লিদের লক্ষ্য করে রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে ইসরাইলি বাহিনী।

এর দুদিন পর শবে কদরেও আলআকসা মসজিদে ইসরাইলি বাহিনীর সঙ্গে মুসল্লিদের সংঘর্ষ হয়। এর প্রতিবাদে গাজা সীমান্তে বিক্ষোভ শুরু হয়। পরে গত ১০ মে থেকে গাজায় বিমান হামলা শুরু করে ইসরাইল। বিশ্ব নেতৃবৃন্দ হামলা বন্ধের আহবান জানালেও তা আমলে নেয়নি ইসরাইল।

ফিলিস্তিনি ও ইসরাইলের মধ্যে সংঘর্ষ দশম দিনে পড়েছে। এ পর্যন্ত ইসরাইলি হামলায় ফিলিস্তিনের ২২০ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে ৬৩ জন শিশু রয়েছে। এ ছাড়া দেড় হাজারের বেশি মানুষ আহত হয়েছেন। অপরদিকে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড থেকে হামাসের হামলায় ১২ ইসরাইলি নিহত হয়েছেন। পাশাপাশি এ পর্যন্ত আহত হয়েছেন তিন শতাধিক ইসরাইলি।

সংবাদের ধরন : আন্তর্জাতিক নিউজ : নিউজ ডেস্ক