বিস্তারিত

৭ জুলাই থেকে রাজধানীতে রিকশা চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা

ছবি : সংগ্রহকৃত

৭ জুলাই থেকে রাজধানীর তিনটি গুরুত্বপূর্ণ সড়কে রিকশা চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। এগুলো হচ্ছে গাবতলী থেকে আসাদগেট নিউমার্কেট হয়ে আজিমপুর, সায়েন্স ল্যাবরেটরি থেকে শাহবাগ এবং কুড়িল থেকে বাড্ডা রামপুরা হয়ে সায়েদাবাদ পর্যন্ত।

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানোর উদ্দেশ্যে রাজধানীর প্রধান প্রধান সড়কে রিকশা না চালানোর আহবান জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আওতাধীন এলাকার মধ্যে নির্ধারিত সড়কগুলোতে রিকশা না চালানোর জন্য মালিক ও চালকদের প্রতি আহবান জানিয়ে মেয়র আতিক বলেন, দেশ যতো এগিয়ে যাচ্ছে, উন্নত হচ্ছে, ততো জনসংখ্যার হার বাড়ছে। আমরা ডিজিটাল হওয়ার চেষ্টা করছি, কিন্তু আমরাই এতোদিন ম্যানুয়াল ছিলাম। আমাদেরকে এমন পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য মেকানিক্যাল সিস্টেমে যেতে হবে। তাই একটি সড়কে ম্যানুয়াল এবং মেকানিক্যাল সিস্টেম একই সঙ্গে চলতে পারে না। এজন্য আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, যেসব সড়কে যান্ত্রিক পরিবহন চলে সেসব সড়কে রিকশা চলতে দেওয়া হবে না। এর কারণে শুধু যে যানজট হচ্ছে তা নয়, দুর্ঘটনারও শঙ্কা থাকে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

শুধু নির্দিষ্ট কিছু সড়কে রিকশা চলাচল নিষিদ্ধ হওয়ায় নগরবাসীর ভোগান্তির কোনো কারণ হবে না বলেও আশ্বাস দেন মেয়র। তিনি বলেন, আমরা পুরো শহর থেকে রিকশা তুলে দিচ্ছি, তা কিন্তু নয়। তাই কেউ বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করলে তাকে কান দেবেন না।

রিকশা চলাচলে নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি ফুটপাত থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে ডিএনসিসি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবেন বলেও জানান মেয়র আতিক। তিনি বলেন, জনদুর্ভোগ এড়াতে রিকশা চলাচল বন্ধের পাশাপাশি আগামীকাল থেকে ডিএনসিসির সব এলাকায় যেখানেই ফুটপাত দখল থাকবে সেখানেই আমাদের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা অভিযান পরিচালনা করবেন।

 

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক