বিস্তারিত

২০১৭ সালে বলিউডের সাত ফ্লপ ছবি

ছবি : সংগ্রহকৃত

bd news,bdnews,bdnews24,bdnews24 bangla,bd news 24,bangla news,bangla,bangla news paper,all bangla newspaper,bangladesh newspapers,all bangla newspaper,bangla news paper,bangladesh newspapers,all bangla newspapers,bd news 24,bangla news today,bd news paper,all bangla news paper,bangladeshi newspaper,all bangla newspaper,all bangla newspapers,bdnews,bangla news,bangla newspaper,bangla news paper,bangla news 24,banglanews,bd news 24,bangla news today,bd news paper,all bangla news paper,bangladeshi newspaper,all bangla newspaper,all bangla newspapers

চলতি বছর বলিউডে যেমন ‘বাহুবলি : দ্য কনক্লুশন’এর মতো সুপারডুপার হিট ছবি করেছে, তেমনি প্রচুর ফ্লপ ছবি হয়েছে। সেসব ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে ছিলেন বলিউডের নামীদামি তারকারাই। চলতি বছরের ছবিগুলো ঘেঁটে বছরের সেরা সাত ফ্লপ ছবির তালিকা তৈরি করেছে ভারতীয় গণমাধ্যম।

যাব হ্যারি মেট সেজাল
‘যাব হ্যারি মেট সেজাল’-এর পরিচালকের কাছে সবকিছুই ছিল। শাহরুখ খানের মতো বলিউড তারকা, ইউরোপের লোকেশন এবং একটি প্রেমের কাহিনী। কিন্তু সবকিছু নিয়েই ব্যর্থ হলেন ছবিটির পরিচালক ইমতিয়াজ আলি।

টিউবলাইট

‘বজরঙ্গি ভাইজান’ এর সাফল্যে আরো একবার সরল সালমানকে পর্দায় উপস্থিত করতে চাইছিলেন পরিচালক কবির খান। কিন্তু পর্দায় সালমানকে নম্র এবং ভীরু উপস্থাপন করতে গিয়ে পর্দায় অন্য চরিত্রের হাতে মার খেতে বাধ্য করিয়েছেন কবির খান। ‘বজরঙ্গি ভাইজান’-এ যদিও অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে মারমুখী হয়েছিলেন সালমান; কিন্তু ‘টিউবলাইট’ এ সেটা ঘটেনি।  আর এ রকম চরিত্রে ভক্তরা যে আর সালমানকে দেখতে চায় না, তার প্রমাণ ‘টিউবলাইট’।

বেগমজান
সাধারণত কোনো হিট চলচ্চিত্রের নতুন সংস্করণ তৈরি করা হয়। কিন্তু এ ক্ষেত্রে হয়েছে উল্টোটা। কলকাতায় মুখ থুবড়ে পড়া ‘রাজকাহিনী’র হিন্দি সংস্করণ হিসেবে নির্মিত হয় ‘বেগমজান’। তবু ছবিটির কাহিনীতে মুগ্ধ মহেশ ভাট ছবিটির প্রযোজনার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু বলিউড বক্স-অফিসেও আশানুরূপ আয় করতে পারেনি ছবিটি। বেগমজান চরিত্রে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের অভিনয় প্রশংসিত হলেও বিদ্যা বালানের অভিনয় ভালো লাগেনি সমালোচকদের।

হাসিনা পার্কার
একে তো নবীন অভিনেত্রী, তার ওপর প্রশ্নবিদ্ধ অভিনয়। ‘হাসিনা পার্কার’ ছবিতে শ্রদ্ধা কাপুরকে অভিনয় করতে দেওয়াটাই বোধ হয় ছিল ছবিটির সবচেয়ে বড় ভুল। মুম্বাইয়ের ত্রাস হিসেবে যতটা আক্রমণাত্মক অভিনয়ের প্রয়োজন ছিল, শ্রদ্ধা কাপুর তা পর্দায় উপস্থাপন করতে পারেননি। ফলে ফ্লপের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে ছবিটি।

অ্যা জেন্টেলম্যান
‘অ্যা জেন্টেলম্যান’ ছবিটিকে সাম্প্রতিক সময়ের হলিউড চলচ্চিত্রের ম্যাশ আপ বা সংকলনও বলা যায়। কিন্তু শুধু চাকচিক্য দিয়ে তো আর দর্শক টানা যায় না। কাহিনীতেও যথেষ্ট রসদ থাকতে হয়। সেই রসদের অভাবেই মুখ থুবড়ে পড়ে সিদ্ধার্থ মালহোত্রা ও জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ অভিনীত অ্যা জেন্টেলম্যান।

রাবতা
‘রাবতা’ দিয়েই বলিউডে পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন দীনেশ ভাইজান। করণ-অর্জুনের মতো পুনর্জন্মের কাহিনী দিয়ে সাজানো হয় ছবিটি। কিন্তু সুশান্ত সিং রাজপুতের অদ্ভুত পোশাক, কৃতি স্যানন ও রাজকুমার রাওয়ের অপরিণত অভিনয়সহ নানাবিধ কারণে বক্স-অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে ছবিটি। এ ছাড়া ছবির কেন্দ্রীয় দুই চরিত্রের মধ্যে রসায়নও ছিল অনুপস্থিত।

রেঙ্গুন
‘রেঙ্গুন’ ছবিটিতে অভিনয় করেছেন কঙ্গনা রানাউত, শহিদ কাপুর ও সাইফ আলি খান। বড় নাম থাকলেও কাহিনীতে যথেষ্ট দম দিতে ভুলে গিয়েছিলেন ছবিটির পরিচালক বিশাল ভারদ্বাজ। ফলে বক্স-অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে ছবিটি।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক