বিস্তারিত

স্বাভাবিক জীবনটাকে মিস করছি: অধরা খান

ছবি : সংগ্রহকৃত

আমাদের দেশেও প্রতিদিন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১ হাজার ৭৬৪ জনের নমুনায় করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। মারা গেছেন আরও ২৮ জন। ঘরে থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাকেই প্রতিরোধের বড় উপায় বলা হচ্ছে।

এই সময় তারকারাও ঘরেই থাকছেন। লকডাউনে বন্দি চলতি সময়ের আলোচিত চিত্রনায়িকা অধরা খান। ঘরে থেকেই করোনা সচেতনতার বার্তা দিচ্ছেন তিনি। পাশাপাশি নিম্ন আয়ের মানুষের দিকেও সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন। এবার অন্যরকম এক ঈদ কাটিয়েছেন এ নায়িকা।

এ বিষয়ে অধরা বলেন, লকডাউনের পর থেকে বাসাতেই আছি। বের হইনি তেমন। ঈদের দিনও বাসায় ছিলাম। সন্ধ্যায় গাড়ি নিয়ে একটি চক্কর দিয়ে বাসায় চলে এসেছি। আসলে এই সময় বাসায় থাকার বিকল্প নেই। অনেক সিনেমা দেখছি, বই পড়ছি। ফিটনেস ঠিক রাখার চেষ্টা করছি, প্রতিদিন ইয়োগা করছি। এভাবেই সময় কাটছে।

‘কোভিড-নাইন্টিন ইন বাংলাদেশ’ শিরোনামের এই চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন চিত্রনায়িকা অধরা খান। গত ২৭ মে কমলাপুর রেলস্টেশনে ছবির শুটিং শুরু হয়।

এ প্রসঙ্গে অধরা খান বলেন, আসলে হঠাৎ করেই আমরা কাজটি শুরু করেছি। ছবির গল্প বা চরিত্র বুঝে ওঠার আগেই আমরা ছবির শুটিং শুরু করেছি। সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড স্যার গুণী নির্মাতা। উনার চলচ্চিত্রগুলো বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রশংসিত হয়েছে। স্যারের ওপর ভরসা করেই আমি শুটিংয়ে অংশ নিয়েছি।

অধরা খান বলেন, এখন এমন একটা সময় চলছে, আমরা শুটিং করার কথা চিন্তা করতে পারিনি। পরিবার থেকেও অনুমতি পাচ্ছিলাম না। অনেক কষ্ট করে সবাইকে রাজি করাতে হয়েছে। তবে শুটিং ইউনিট যথেষ্ট সুরক্ষিত ছিল। ইউনিটে একজন ডাক্তার ছিলেন, প্রতিদিন আমাদের সবার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে শুটিং করা হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে শুট করেছি।

পরিচালনার পাশাপাশি চিত্রনাট্যও করেছেন ডায়মন্ড। প্রযোজনায় আছেন শবনম শেহনাজ চৌধুরী। ‘কোভিড-নাইন্টিন ইন বাংলাদেশ’ চলচ্চিত্রে অধরা খানের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন চিত্রনায়ক বাপ্পী চৌধুরী।

অধরা আরো বলেন, স্বাভাবিক জীবনটাকে মিস করছি। সাধারণ ছুটি শেষ হচ্ছে ৩০শে মে থেকে। কিন্তু সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে। কারণ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এখনো বাড়ছে। এই সময়ে নিম্ন আয়ের মানুষেরা বিপাকে পড়েছেন বেশি। সাধারণ ছুটি শেষ হলেও নিম্ন আয়ের মানুষদের খারাপ অবস্থা কাটিয়ে উঠতে সময় লাগবে। আমি চেষ্টা করেছি এরকম মানুষের পাশে দাঁড়াতে। আমি সবাইকে অনুরোধ করবো যতটুকু সম্ভব নিম্ন আয়ের মানুষের পাশে দাঁড়ান। করোনা আমাদের সবাইকে এক হয়ে মোকাবেলা করতে হবে। তাহলেই এই অদৃশ্য শত্রুকে পরাজিত করতে পারবো আমরা।

শাহীন সুমন পরিচালিত ‘মাতাল’ ও ইস্পাহানী আরিফ জাহান পরিচালিত ‘নায়ক’, এই দুই ছবি দিয়ে চলচ্চিত্রে নায়িকা হিসেবে অভিষেক হয় অধরা খানের। ২০১৮ সালের অক্টোবরে ছবি দুটি মুক্তি পায়। তবে ‘পাগলের মতো ভালোবাসি’ ছবির মধ্য দিয়ে ঢালিউডে যাত্রা শুরু করেন অধরা।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক