বিস্তারিত

সাত মাস পর বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে ‘ফ্লাইট’ চালু

ছবি : সংগ্রহকৃত

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সাত মাস বন্ধ থাকার পর আজ বুধবার থেকে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে যাত্রীবাহী বিমান চলাচল শুরু হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে আজ ‘এয়ার বাবল ফ্লাইট’ চালু হয়েছে। সপ্তাহে ৫৬টি এয়ার বাবল ফ্লাইট চলাচল করবে।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বুধবার বাবল ফ্লাইটের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস এম মার্শাল মফিদুর রহমান, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এ এইচ এম তৌহিদ উল আহসান ও ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ।

উদ্বোধনী দিনে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস প্রথম বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ফ্লাইট চালু করেছে। ঢাকা থেকে চেন্নাই রুটে এখন থেকে নিয়মিত ফ্লাইট চালাবে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস।

এর আগে বেবিচক জানায়, বাংলাদেশ থেকে ভারতের তিনটি গন্তব্য কলকাতা, দিল্লি ও চেন্নাইয়ে ফ্লাইট চলবে। প্রতি সপ্তাহে বাংলাদেশ থেকে যাবে ২৮টি ফ্লাইট। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস কলকাতা ও দিল্লিতে, ইউএস-বাংলা চেন্নাই ও কলকাতায় এবং নভোএয়ার কলকাতায় ফ্লাইট পরিচালনা করবে। অন্যদিকে, ভারত থেকে ঢাকায় আসবে সপ্তাহে ২৮টি ফ্লাইট। ভারতের এয়ার ইন্ডিয়া, ইনডিগো, স্পাইসজেট, ভিস্তারা ও গোএয়ার এসব ফ্লাইট পরিচালনা করবে।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক