বিস্তারিত

সহিংসতার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করলেন সিইসি

ছবি : সংগ্রহকৃত

bd news,bdnews,bdnews24,bdnews24 bangla,bd news 24,bangla news,bangla,bangla news paper,all bangla newspaper,bangladesh newspapers,all bangla newspaper,bangla news paper,bangladesh newspapers,all bangla newspapers,bd news 24,bangla news today,bd news paper,all bangla news paper,bangladeshi newspaper,all bangla newspaper,all bangla newspapers,bdnews,bangla news,bangla newspaper,bangla news paper,bangla news 24,banglanews,bd news 24,bangla news today,bd news paper,all bangla news paper,bangladeshi newspaper,all bangla newspaper,all bangla newspapers

সহিংসতা ও ভোট ডাকাতির পরেও প্রথম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সার্বিক বিবেচনায় গ্রহণযোগ্য, সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ভোট হয়েছে বলে দাবি করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিব উদ্দীন আহমদ। অবশ্য তিনি সারা দেশে সহিংসতার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন। সিইসি বলেন, হাতিয়ায় দুইজন গুলিবিদ্ধসহ কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটলেও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট হয়েছে। নির্বাচন কমিশন সব জায়গায় নজরদারি করছে। যেখানে অভিযোগ উঠছে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। নোয়াখালীতে দুই নির্বাচনী কর্মকর্তা গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ঝালকাঠিতে একজন মারা গেছেন। আহত-নিহতদের জন্য দুঃখ প্রকাশ করছি। আজ মঙ্গলবার ভোট গ্রহণ শেষে বিকালে তিনি সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে এ দুঃখ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ৭৩২টি ইউপিতে ভোটা হওয়ার কথা থাকলেও আদালতের নির্দেশনা ও কিছু সমস্যার কারণে ৭১২টি ইউপিতে নির্বাচন হয়েছে। কয়েকটি কেন্দ্রে অনিয়ম ও অঘটন ঘটেছে। এ কারণে ৫৬টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। সার্বিকভাবে এ নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি ছিল, বিশেষ করে নারীদের উপস্থিতি ছিল স্বতঃস্ফূর্ত। কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া এ নির্বাচন অবাধ ও গ্রহণযোগ্য হয়েছে। ভোট নিয়ে বিএনপি এবং জাতীয় পার্টির মতামত সম্পর্কে সিইসি বলেন, সবার দাবি ও মতামত থাকতে পারে, থাকবে। আমরা মনে করি অল্প কিছু জায়গায় অনিয়ম হয়েছে। আমরা এসব অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা নেব। মামলা করব। এখনকার সময়ে গণমাধ্যম অনেক শক্তিশালী। কোনো কিছু লুকানো যায় না। বিভিন্ন দলের এমন অভিযোগ থাকবেই। আইনশৃঙ্খলা রক্ষকারী বাহিনীর প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ভোট সুষ্ঠু করার জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সরকার আমাদের সহযোগিতা করেছে। বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনার বিরুদ্ধে আমরা অ্যাকশন নিচ্ছি। রাতে দুই জায়গায় স্টাইপিং হয়েছে ফায়ারও করা হয়েছে। জড়িতদের থানায় সোর্পদ করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। কিছু জায়গায় গোলযোগ-সংর্ঘষ হয়েছে, পুলিশ সেসব জায়গায় প্রতিরোধ করলো না। আমরা এগুলো দেখছি। রাতেও এসব বিষয়ে কিছু অ্যাকশন নেয়া হবে। কাজী রকিব উদ্দীন আহমদ বলেন, সার্বক্ষণিকভাবে ভোট মনিটর করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনারগণ নির্বাচন মনিটর করেছেন। এ ছাড়া ব্যাপকসংখ্যক সাংবাদিকেরা নির্বাচন কাভার করেছেন, টিভির খবরও আমরা মনিটর করেছি। এতে আমরা উপকৃত হয়েছি। ৭১২টি ইউপিতে ভোট গ্রহণ হয়েছে। সার্বিকভাবে নির্বাচন সুষ্ঠু অনুষ্ঠানে রাজনৈতিক দল, আইন রক্ষাকারী শৃঙ্খলাবাহিনী এবং ভোটারদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নির্বাচন কমিশনার আবু হাফিজ, মো. শাহ নেওয়াজ, ইসি সচিব সিরাজুল ইসলাম, জনসংযোগ পরিচালক এসএম আসাদুজ্জামান প্রমুখ।

সংবাদের ধরন : শিরোনাম নিউজ : স্টাফ রিপোর্টার