বিস্তারিত

সম্প্রতি লস অ্যাঞ্জেলসে প্রিয়াঙ্কা বিলাসী বাড়ি কিনেছেন

ছবি : সংগ্রহকৃত

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া দেশের পাশাপাশি বিদেশের দর্শকদেরও মন জয় করেছেন। বহিরাগত হয়েও বলিউডের এক নম্বর নায়িকা হওয়া থেকে তাঁকে আটকানো যায়নি।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ১৯৮২ সালের ১৮ জুলাই ভারতের বিহারের (বর্তমানে ঝাড়খণ্ড) জামশেদপুরে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা অশোক চোপড়া এবং মাতা মধু চোপড়া দুজনেই ভারতীয় সেনাবাহিনীর চিকিৎসক। তার পিতা পাঞ্জাবি এবং আম্বালার অধিবাসী ছিলেন। তার মাতা ঝাড়খণ্ডের অধিবাসী।

বাবার কর্মসূত্রে দেশের বিভিন্ন শহরে কেটেছে প্রিয়ঙ্কার শৈশব। চণ্ডীগড়, পুণে, দিল্লি, অম্বালা, লখনউ, বরেলী-সহ দেশের নানা শহরের স্কুলে পড়াশোনা করেছেন প্রিয়াঙ্কা। পরে ১৩ বছর বয়সে তিনি পাড়ি দেন আমেরিকায়। দেশে ফিরে মাত্র ১৮ বছর বয়সে তিনি ভারত-সুন্দরীর তকমা পান। জয়ী হন মিস ওয়ার্ল্ডের মঞ্চেও।

বলিউডে নায়িকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ ‘হিরো: লভ স্টোরি অব এ স্পাই’ ছবিতে। এর পর ‘অন্দাজ’ এবং ‘মুঝসে শাদি করোগি’ ছবিতেও অভিনয় করেন তিনি। ‘এতরাজ’ ছবি থেকে তিনি নজর কাড়েন নায়িকা হিসেবে। এর পর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি প্রিয়াঙ্কাকে। কেরিয়ারের প্রথম থেকেই সঠিক চিত্রনাট্য নির্বাচন এগিয়ে যেতে সাহায্য করেছে তাঁকে। ‘কৃষ’, ‘ডন’, ‘ব্লাফমাস্টার’, ‘ফ্যাশন’-এর মতো ছবিতে অভিনয় একের পর এক সাফল্য এনে দিয়েছে তাঁকে।

‘দোস্তানা’, ‘বরফি’, ‘কামিনে’, ‘বাজিরাও মস্তানি’, ‘দ্য স্কাই ইজ পিঙ্ক’ তাঁর ফিল্মোগ্রাফিতে উল্লেখযোগ্য নাম। প্রায় ১৬ বছর ইন্ডাস্ট্রিতে কাটিয়ে এখন তাঁর ছবি পিছু পারিশ্রমিক ১২ কোটি টাকা বলে শোনা যায়। প্রথম সারির নায়িকা হওয়ার পাশাপাশি প্রিয়াঙ্কা এক জন প্রযোজকও। দীর্ঘ প্রেম পর্বের পরে ২০১৮ সালে তিনি বিয়ে করেছেন মার্কিন সঙ্গীতশিল্পী-অভিনেতা নিক জোনাসকে।

সম্প্রতি লস অ্যাঞ্জেলসে জোনাস দম্পতি একটি প্রাসাদের মতো বিলাসী বাড়ি কিনেছেন। গুঞ্জন, ভারতীয় মুদ্রায় বাড়িটির দাম প্রায় ১৪৪ কোটি টাকা। সাতটি শয়নকক্ষ এবং ১১টি বাথরুম-সহ তাঁদের বাড়িতে মজুত আধুনিক ও বিলাসী জীবনযাত্রার সব উপকরণ। বাড়িতে বসেই দেখা যায় মনোরম প্রাকৃতিক দৃশ্য। মুভি থিয়েটার, জিমন্যাসিয়াম, বার, ইন্ডোর বাস্কেটবল কোর্ট এবং সুইমিং পুল দিয়ে সাজানো নিক-প্রিয়াঙ্কার নতুন বাড়ি। এ ছাড়াও একাধিক বিলাসবহুল গাড়ি আছে তাঁদের বাহন-তালিকায়।

প্রিয়াঙ্কাকে একটি ‘মার্সিডিজ মেব্যাক’ উপহার দিয়েছেন নিক। এ ছাড়াও প্রিয়াঙ্কার আছে পাঁচ কোটি টাকা মূল্যের ‘রোলস রয়েস গোস্ট’, ‘বিএমডব্লু ফাইভ সিরিজ’, ‘মার্সিডিজ এস ক্লাস’, ‘অডি কিউ সেভেন’, ‘১৯৬৪ থান্ডারবার্ড’, ‘১৯৬৮ ফোর্ড মাস্ট্যাং’, ‘শেভ্রোলে কামারো’, ‘কর্মা ফিস্কার’ এবং ‘ডজ চ্যালেঞ্জার আর টি’ দাঁড়িয়ে থাকে তাঁদের গাড়িশালে।

বিশ্বের তারকা মানচিত্রে নিক জোনাস ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এখন পাওয়ার কাপলদের মধ্যে অন্যতম। শোনা যায়, তাঁদের যৌথ সম্পত্তির পরিমাণ নাকি ভারতীয় মুদ্রায় ৭৩৪ কোটি টাকা।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক