বিস্তারিত

সমুদ্রসৈকতে পার্টিতে মাতলেন আমেরিকানরা

ছবি : সংগ্রহকৃত

চিনে করোনার প্রকোপ কমেছে। কিন্তু ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২০ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনা পজিটিভ হয়েছেন আমেরিকায়, মারা গিয়েছেন ৬৩৩ জন। তবে সপ্তাহান্তের ছবি দেখে সে সব কিছুই বোঝার জো রইল না। সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং (সামাজিক দূরত্ব) শিখছে ‘মেমোরিয়াল ডে উইকএন্ড’ উপলক্ষে সমুদ্রসৈকতে পার্টি থেকে শুরু করে নানা ধরনের উদ্যাপনে মাতলেন মানুষ।

 

হোয়াইট হাউসে করোনা টাস্ক ফোর্সের বিশেষজ্ঞ মনে করালেন, ‘সামাজিক দূরত্ব মানাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। একান্তই না পারলে মাস্ক পরুন।’ কিন্তু কে শোনে কার কথা?

সোমবারের পর আমেরিকায় করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লক্ষ ছুঁইছুঁই। আক্রান্ত ১৭ লক্ষের কাছাকাছি। সাবধানতার জন্য ব্রাজিল থেকে আমেরিকায় আসার উপর নতুন নিষেধাজ্ঞা চাপিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। জানিয়েছে, গত দু’সপ্তাহের মধ্যে কোনও বিদেশি নাগরিক ব্রাজিলে গেলে আমেরিকায় আসতে পারবেন না।

অন্য দিকে, দেশের পরিস্থিতির দ্রুত অবনতির জন্য ব্রাজিলের আমজনতা থেকে শুরু করে রিও দি জেনেইরো শহরের মেয়র, প্রত্যেকেই প্রেসিডেন্ট জেয়ার বলসোনারোর বিরুদ্ধে সরব। রবিবারও সে দেশে ১৫৮১৩ জনের দেহে নয়া সংক্রমণ ধরা পড়েছে, মারা গিয়েছেন ৬৫৩ জন।

সোমবার বিশ্বজুড়ে করোনায় সংক্রামিতের সংখ্যা সাড়ে পঞ্চান্ন লক্ষ পেরিয়ে যায়, মৃতের সংখ্যা দাঁড়ায় ৩,৪৮,২৪২। রাশিয়াতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে প্রায় ৯ হাজার জন সংক্রামিত হন। ব্রিটেনেও ফের ১৫১ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। এ দিনই আবার লকডাউনের নিয়ম ভাঙায় অভিযুক্ত প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের উচ্চপদস্থ আধিকারিক ডমিনিক কামিংস জানিয়ে দেন, যা করেছেন তার জন্য অনুতপ্ত নন।

এ সবের মাঝেই জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের ঘোষণা, জরুরি অবস্থা তুলে নেওয়া হচ্ছে। তবে আপাতত হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন নিয়ে অত্যুৎসাহে ভাঁটা পড়তে পারে বলে ধারণা একাংশের। কারণ ‘হু’ এ দিন জানায়, করোনা চিকিৎসায় ওষুধটির পরীক্ষা বন্ধ রাখছে তারা।

সংবাদের ধরন : আন্তর্জাতিক নিউজ : নিউজ ডেস্ক