বিস্তারিত

শিশু মাহার লাশ সুরমা নদীর থেকে উদ্ধার

ছবি : সংগ্রহকৃত

সিলেট শহরতলীর টুকেরবাজার ব্রীজের উপর থেকে ফেলে দেওয়া ‘শিশু মাহার লাশ’ সুরমা নদীর লামাকাজি এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। আটক সৎ মাকে আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ব্রীজ থেকে শিশুকে নদীতে ফেলে দেওয়ার ঘটনায় শুক্রবার ওই শিশুর বাবা জিয়াউল হক বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় একমাত্র আসামি করা হয় শিশু মাহার সৎ মা ও জিয়াউলের দ্বিতীয় স্ত্রী সালমা বেগমকে। শনিবার সালমাকে আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

এদিকে, শনিবার বিকেলে লামাকাজি এলাকায় সুরমা নদীতে শিশু মাহার লাশ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ শিশুটির লাশ উদ্ধার করে।

প্রসঙ্গত, পারিবারিক কলহের জের ধরে গত শুক্রবার বিকেলে টুকেরবাজার সেতু থেকে সুরমা নদীতে সতীনের পাঁচ বছর বয়সী শিশুকন্যাকে ফেলে দেয় সালমা বেগম। এসময় স্থানীয় জনতা সালমা বেগমকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করে।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক