বিস্তারিত

শবেবরাতে কবরস্থান ও মাজারে জনসমাগম না করার আহবান

ছবি : সংগ্রহকৃত

ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানায় ইতোপূর্বে লক্ষ্য করা গেছে যে, শবেবরাতে জিয়ারতের জন্য কবরস্থান ও মাজারে অনেক লোকের সমাগম হয়। এছাড়া কবরস্থান ও মাজারের ভিতরে-বাইরে অনেক ভিক্ষুক, অসহায়, অসচ্ছল, প্রতিবন্ধী ও রোগাক্রান্ত ব্যক্তি সাহায্যের জন্য সমবেত হন। এ ধরনের জনসমাগমের কারণে করোনা ভাইরাস ব্যাপক হারে সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এমতাবস্থায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে শবে বরাতে কবর জিয়ারতের উদ্দেশ্যে কবরস্থানে না গিয়ে নিজ নিজ বাসস্থানে অবস্থান করে মৃত আত্মীয়-স্বজনের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করার জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে বিশেষভাবে আহবান জানানো যাচ্ছে।

একই সঙ্গে কবরস্থান ও মাজারের গেট বন্ধ রাখাসহ কবরস্থানের ভিতর ও বাইরে কোনো ধরনের জনসমাগম না করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সংশ্লিষ্ট দায়িত্বপ্রাপ্তদের অনুরোধ করেছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

করোনা সংক্রমন ঠেকাতে কোনো গোরস্থানেই মুসল্লিদের ঢুকতে দেওয়া হবে না। সিলেটে হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজারের তিনটি ফটকই বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার থেকে শুক্রবার রাত পর্যন্ত বন্ধ থাকবে মাজারের ফটক। এ সময় কাউকেই ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হবে না। মাজারের মোতাওয়াল্লী ফতেহ উল্লাহ আল আমান এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানিয়েছেন। একই সঙ্গে মাজার সংলগ্ন কবরস্থানের ফটকও বন্ধ থাকবে।

এদিকে সিলেটের সবচেয়ে বড় গোরস্থান মানিকপীর (রহ.) মাজারেও একই রকম কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী জানিয়েছেন মানিকপীর (রহ.) কবর সহ কোনো গোরস্থানেই মুসল্লিদের ঢুকতে দেওয়া হবে না।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক