বিস্তারিত

লঞ্চডুুবির ১৩ ঘণ্টা পর ১ জনকে জীবিত উদ্ধার

ছবি : সংগ্রহকৃত

বুড়িগঙ্গা নদীতে ঢাকা-মুন্সীগঞ্জ রুটের মর্নিং বার্ড নামের লঞ্চটি ডুবে যাওয়ার ১৩ ঘণ্টা পর একজনকে জীবিত উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স। আজ সোমবার রাত ১০টা ২০ মিনিটে ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করা হয়।

ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা বিভাগের উপপরিচালক দেবাশীষ বর্ধন বলেন, নদীতে অনেক পানি থাকায় উদ্ধারকারী জাহাজ ব্রিজে আটকে ছিল। সেজন্য ফায়ার সার্ভিস হেয়ার লিফটিং ব্যাগের মাধ্যমে যখন লঞ্চের অংশ বিশেষ উপরে তুলে ফেলে তখন ভেতর থেকে একজন ভেসে উঠেন। পরে আমরা তাকে উদ্ধার করি। উদ্ধার করে অ্যাম্বুলেন্সে তুলি। একটা সময় তিনি চোখ মেলে তাকান।

যাকে উদ্ধার করেছি তার নাম সুমন। মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়িতে তার গ্রামের বাড়ি। এখন তিনি মিডফোর্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এবং ভালো আছেন।

তাৎক্ষণিক উদ্ধার অভিযানে নামে ফায়ার সার্ভিস, কোস্টগার্ড, নৌবাহিনীর সদস্যরা। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত চলা টানা অভিযানে ৩২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

ডুবে যাওয়া মর্নিং বার্ড লঞ্চটি উদ্ধারের জন্যে “জাহাজ প্রত্যয়” উদ্ধারের জন্য আসার পথে পোস্তগোলা ব্রিজে আটকে যায়। এতে ব্রিজটির ক্ষতির আশঙ্কা করছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। এ কারণে কারণে ব্রিজটিতে এক পাশের যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে।

এ ঘটনায় ৭ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়। এছাড়া, মৃত প্রত্যেকের পরিবারকে দেড় লাখ টাকা ও তাৎক্ষণিক ভাবে দাফন করা জন্য ১০ হাজার টাকা দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক