বিস্তারিত

লকডাউনে গুগল সার্চে ১ নম্বরে গায়িকা কনিকা কাপুর

ছবি : সংগ্রহকৃত

দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আটকাতে এই পথই নিয়েছে বিশ্বের বেশিরভাগ দেশ। বাড়ি বসে অনলাইনে সিনেমা-অনুষ্ঠান দেখার প্রবণতা আগের চেয়ে অনেকটাই বেড়েছে। সম্প্রতি ইয়াহু এই লকডাউন পিরিয়ডে গুগল সার্চে কী বেশি দেখছেন নেটিজেন তার একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। সেখানে দেখা গিয়েছে ৪২৭ শতাংশ করোনাভাইরাস সংক্রান্ত লেখা দেখতে পছন্দ করছেন মানুষ।

তবে মজার ব্যাপার হল, ভারতীয় সেলিব্রিটিদের মধ্যে দীপিকা পাড়ুকোন, প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে পিছনে ফেলে দিয়ে এক নম্বর সার্চে রয়েছেন বলিউডের জনপ্রিয় গায়িকা ‘বেবি ডল’ নামে খ্যাত কনিকা কাপুর। তালিকায় নাম নেই সলমান খান বা রজনীকান্তেরও।

লকডাউনের আগে পর্যন্ত দীপিকা পাড়ুকোন ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়াই ছিলেন সবচেয়ে বেশির তালিকায়। লকডাউন চলাকালীন প্রিয়াঙ্কাকে সরিয়ে এসেছেন দিশা পাটানি। দীপিকা পাড়ুকোন ও সারা আলি খান রয়েছেন প্রথম পাঁচে। গত মাসে প্রথম পাঁচে ছিলেন ক্যাটরিনা কাইফ।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভরতি হয়েছিলেন বলিউডের ‘বেবি ডল’ কনিকা কাপুর। ভরতি হওয়ার ১০ দিন আগে দেশে ফিরলেও মাত্র দিন চারেক আগে থেকে তাঁর সর্দি-কাশি-জ্বরের মতো উপসর্গ দেখা দেয়। ডাক্তারের পরামর্শমতো করোনাভাইরাস পরীক্ষা করালে ফল পজিটিভ এসেছে বলে জানা যায়। তিনি ও তাঁর গোটা পরিবার পুরোপুরি ভাবে কোয়ারান্টিনে ঠিলেন বলে জানিয়েছেন কনিকা। কিছুদিন আগেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪২ বছরের গায়িকা।

২০১৪ সালে তিনি রাগিনি এমএমএস ২ চলচ্চিত্রের বেবী ডল গানের মাধ্যমে বলিউডে নেপথ্য কষ্ঠশিল্পী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। গানটি মুক্তির পরবর্তী সময়ে ব্যাপক সমালোচনার স্বাীকার হলেও গানটি টপচার্টের শীর্ষস্থান দখল করে নেয়। কাপুর তার স্বাতন্ত্রসূচক শৈলী কণ্ঠের সুবাদে সমালোচকদের প্রশংসা লাভ করেন এবং বিভিন্ন পুরস্কার লাভ করেন। যার মধ্যে অন্যতম হল ফিল্মফেয়ার পুরস্কার শ্রেষ্ঠ নারী নেপথ্য শিল্পী। কনিকার অন্যান্য শীর্ষ এবং সফল গানগুুলি হল: হ্যাপি নিউ ইয়ার (২০১৪) চলচ্চিত্র থেকে “লাভলী” অ্যান্ড “কামলি”, রয় (২০১৫) চলচ্চিত্রের “চিটিয়া কালাইয়া”, এক পেহেলী লীলা (২০১৫) চলচ্চিত্রের “দেশী লূক”, অল ইজ ওয়েল (২০১৫) এর “নাচান ফারাটে”, কিচ কিসকো প্যায়ার কারো (২০১৫) এর “জুগনি পিকে টাইট হ্যায়”, ম্যায় অর চার্লস (২০১৫)” এর জাব চাহে মেরে জাদু, হেট স্টোরি ৩ (২০১৫) চলচ্চিত্রের “নিন্দে খুল জাতি হ্যায়” এবং দিলওয়ালে (২০১৫) চলচ্চিত্রের “প্রেমিকা” উল্লেখযোগ্য।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক