বিস্তারিত

রাস্তা খোঁড়াখুঁড়িতে ক্ষুব্ধ নগরবাসী

ছবি : সংগ্রহকৃত

জনদুর্ভোগের কথা না ভেবে উন্নয়ন কাজ করায় ভোগান্তি পোহান রাজধানীবাসী। বছরজুড়ে অবিরাম রাস্তা খোঁড়াখুড়ির কারণে নানা সমস্যা তৈরি হলেও সমাধানের জন্য কোন কার্যকর পদক্ষেপ চোখে পড়ে না বলেও দাবি তাদের। নগরবিদরা বলছেন জবাবদিহি নিশ্চিত না হওয়ায় দায়বদ্ধতা নেই কোন সংস্থারই। তবে, নগরকর্তৃপক্ষের দাবি-বর্ষা মৌসুমে রাস্তা কাটার প্রবণতা কমাতে নতুন প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া বন্ধ রয়েছে।

রাজধানীর মিরপুরের এ রাস্তায় বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ চলছে প্রায় বছরখানেক ধরে। কাজ শেষ না হওয়ায় খুঁড়ে রাখা এ সড়কে ঝুঁকি নিয়েই চলতে হয় জনগণকে। পানি নিষ্কাষণের জন্য ড্রেন নির্মাণের কথা থাকলেও অসমাপ্ত প্রকল্পই এখন জলজট তৈরি করে দুর্ভোগ তৈরি করছে।

নগরবাসী জানান-ওয়াসা, বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ, সিটি করপোরেশনসহ বিভিন্ন সেবাসংস্থা প্রায় সারাবছরই উন্নয়ন কাজের জন্য রাস্তা কাটে। একই সড়ক মাসখানেকের ব্যবধানে বেশ কয়েকবার কাটারও নজির রয়েছে অনেক জায়গায়। তাদের অভিযোগ-কোন প্রকল্পের কাজই নির্দিষ্ট সময়ে শেষ হয় না।

নগরবিদদের মন্তব্য- উন্নয়ন কাজে সমন্বয় ও তদারকির অভাব রয়েছে। জনদুর্ভোগ কমাতে সিটি করপোরেশনকে আরও কঠোরভাবে দায়িত্ব পালনের পরামর্শ তাদের।

সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ জানান-প্রত্যেকটি সংস্থার আলাদা কর্মপন্থার কারণে সমন্বয়ের উদ্যোগ ততটা কাজে আসে না। তাই গুরুত্ব বিবেচনা করে রাস্তা কাটার অনুমতি দেন তারা।

ঢাকা উত্তরে প্রায় ৫০০ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প চলছে যা বেশির ভাগই সড়ক কেন্দ্রিক। এগুলো বেশ সময়সাপেক্ষ। তবে রাস্তা কাটা ও তা মেরামত করা নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে থাকবে বলে আশ্বাস কর্তৃপক্ষের।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক