বিস্তারিত

রামেশ্বরমে সমুদ্রে ভাসানো হবে শ্রীদেবীর ভস্ম

ছবি : সংগ্রহকৃত

ফেব্রুয়ারির ২৮ তারিখে ভারতের প্রথম নারী সুপারস্টার শ্রীদেবীকে ভিলে পার্লের শ্রী সেবা সমাজ শশ্মানে অন্তেষ্টিক্রিয়ার মাধ্যমে চিরবিদায় জানানো হয়। আজ ভারতের তামিলনাড়ুর পুণ্যভূমি খ্যাত শহর রামেশ্বরমে সমুদ্রে ভাসানো হবে শ্রীদেবীর ভস্ম।

ভস্মাধারে করে শ্রীদেবীর ভস্ম গতকাল চেন্নাই নিয়ে আসা হয়েছে। আজ শ্রীদেবীর স্বামী বনি কাপুর সে ভস্ম রামেশ্বরমের কাছের সমুদ্রে ভাসাবেন। শ্রীদেবীর শেষকৃত্যের পর তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করেছিলেন বনি কাপুর। সে টুইটে বনি লিখেন, ‘বন্ধু, স্ত্রী ও আমার দুই সন্তানের মাকে হারালাম। এটা অপূরণীয় ক্ষতি। পাশে থাকার জন্য আমার পরিবার, বন্ধু, সহকর্মী, শুভাকাঙ্ক্ষী ও শ্রীদেবীর ভক্তদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। সবাই মিলে আমার এই কঠিন সময় কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করেছি। গোটা বিশ্বের কাছে তিনি ছিলেন চাঁদনি, প্রথিতযশা অভিনেত্রী শ্রীদেবী। তবে আমার কাছে শুধুই ভালোবাসা, বন্ধু আর আমাদের মেয়েদের মা, আমার জীবনসঙ্গী। আমার মেয়েদের কাছে শ্রীদেবীই ছিল জীবন। পরিবারকে ধরে রেখেছিল সে। খুশি ও জাহ্নবীর মাকে বিদায় জানালাম আমরা। আমি আবেদন করব, একটু একলা ছাড়ুন আমাদের। অভিনেত্রীর জীবনে কোনোদিনই পর্দা নামে না। সিলভার স্ক্রিনে তাঁরা উজ্জ্বল হয়ে থাকেন। মেয়েদের আগলে রেখে জীবনে এগিয়ে যেতে হবে। শ্রীদেবী ছিল আমার শক্তি, জীবন ও হাসির কারণ। অনেক ভালোবাসি ওকে। শান্তিতে থাক, আমার ভালোবাসা। তোমায় ছাড়া জীবনটা আর আগের মতো নেই।’

শ্রীদেবীর প্রকৃত নাম শ্রী আম্মা ইয়ানগার আয়াপান হলেও চলচ্চিত্র দুনিয়ায় শ্রীদেবী নামেই পরিচিতি পান তিনি। যদিও তাঁর অভিনয় জীবনের শুরুটা হয়েছিল শিশুশিল্পী হিসেবে। তামিল, তেলেগু, মালায়ালাম ছাড়াও বলিউডের বিভিন্ন ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। ২০১৭ সালে মুক্তি পায় শ্রীদেবী অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র ‘মম’। ২০১৩ সালে পদ্মশ্রী পদকে ভূষিত হন এই অভিনেত্রী।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক