বিস্তারিত

রমজানের আগেই পেঁয়াজ, রসুন ও আদার দাম বেড়েছে

ছবি : সংগ্রহকৃত

রমজান মাস শুরুর আগেই বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। ১৫ দিনের ব্যবধানে পাইকারি বাজারে সবধরনের পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৫-৭ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। একলাফে কেজি-প্রতি রসুন ও আদার দর ২০ থেকে ২৫ টাকা বেড়েছে। দাম বৃদ্ধির পেছনে সরবরাহ সংকটের অজুহাত পাইকারদের। এদিকে, ইরি মৌসুমের নতুন চাল আসতে শুরু করায় স্থিতিশীল রয়েছে চালের বাজার।

ব্যবসায়ীরা জানান, রমজানে যার লাগবে এক বস্তা, সে কিনছে তিন বস্তা। এই কারণে চাহিদা বেশি আমদানি কম। গেল সপ্তাহে যে আদাটা বিক্রি করেছি ৭০-৭৫ টাকায়। এই সপ্তাহে সেই আদা বিক্রি হচ্ছে ৮৫ থেকে ৯০ টাকা।

বাজারে দেখা মিলছে এ মৌসুমের নতুন মিনিকেট ও আটাশ চালের। এতে অনেকটাই স্থিতিশীল হয়ে উঠেছে সব ধরনের চালের দাম। চাল ব্যবসায়ী জানান, চালের মধ্যে পুরাতন মিনিকেট বিক্রি করতেছি ৫৯-৬০ টাকা। আটাশ বিক্রি হচ্ছে ৪০-৪১ টাকায়।

পাইকারি বাজারে অপরিবর্তিত আছে ছোলার দাম। মানভেদে প্রতি-কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬৫-৭০ টাকায়। মুগ ও মসুর’সহ প্রায় সবধরনের ডালও বিক্রি হচ্ছে আগের দামেই। তবে, চিনির দাম উর্ধমূখী।

ব্যবসায়ীরা জানান, গত বছর যে ছোলা বিক্রি করেছি ৮০-৯০ ও ১০০ টাকায় এই বছর ভাল মানের ছোলা ৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

পাইকারি বাজারে স্থিতিশীল আছে জিরা ও এলাচ’সহ প্রায় সব ধরনের মসলার দাম।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক