বিস্তারিত

যুবলীগ কর্মীকে নির্মমভাবে পেটালো প্রতিপক্ষ

ছবি : সংগ্রহকৃত

রোববার বিকেলের চট্টগ্রাম নগরের আকবরশাহ থানাধীন বিশ্বকলোনী এলাকায় মো. মহসিন (২৬) নামে এক যুবলীগ কর্মীকে নির্মমভাবে পিটিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকেরা।

এ ঘটনায় জড়িত এখন পর্যন্ত ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলো মো. মাসুদ (১৮), মো. মিরাজ (১৭), মো. সাজু (২৪), মো. বেলাল (২০) ও মো. তারেক (১৮)।

মারধরের শিকার মহসিন বিশ্বকলোনী এম ব্লকের বাসিন্দা। জানা গেছে, সে উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক সরওয়ার মোর্শেদ কচির অনুসারী।

গুরুতর আহত যুবলীগ কর্মী মহসিন বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মারধরের ঘটনার ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, দাঁড়িয়ে থাকা মহসিনকে অতর্কিত এসে একদল যুবক লাঠিসোটা দিয়ে মারধর শুরু করে। মহসিন তাদের কাছ থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে চারপাশ থেকে তাকে ঘিরে রড ও লাঠি দিয়ে পেটাতে থাকে তারা।

পুলিশ জানিয়েছে, মারধরের সময় মহসিনের পা ধরে রাখা যুবকের নাম চৌধুরী জুয়েল। আর ভিডিও ফুটেজ দেখে তুহিন, রাব্বী, পারভেজ, ফারহান ও খোকন নামে আরও কয়েকজনকে শনাক্ত করা গেছে।

হামলায় জড়িতরা উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক ও স্থানীয় কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসিমের অনুসারী বলে জানা গেছে।

এর আগে শনিবার (২৯ জুন) সরওয়ার মোর্শেদ কচি গ্রুপের কর্মী মামুনকে মারধর করে কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসিমের অনুসারী বেলাল উদ্দিন জুয়েল ও তার সঙ্গীরা। পরে মামুনের বন্ধুরা গিয়ে বেলাল উদ্দিন জুয়েলকে তার ঘরে ঢুকে মারধর করে। আহত বেলাল উদ্দিন জুয়েল ও মামুন দুইজনই চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক