বিস্তারিত

‘ম্যাচটা বাংলাদেশের জেতা উচিত ছিল’

bdnews234 ছবি : সংগ্রহকৃত

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শ্বাসরুদ্ধকর এক ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে এক রানে জিতেছে ভারত।
ভারতের করা ১৪৬ রানের জবাবে কুড়িতম ওভারের শেষ তিন বলে তিনটি উইকেট হারিয়ে হেরে যায় বাংলাদেশ।
হেরে যাবার পর বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেছেন একটু ‘সেন্সিবল’ খেললেই ম্যাচটি বাংলাদেশের হতে পারতো।
ম্যাচ প্রসঙ্গে ক্রিকেট বিশ্লেষক বোরিয়া মজুমদার বলেছেন, “শেষ মুহুর্তে মুশফিক দুটো বাউন্ডারি মারার পর একটা সিঙ্গেল নিয়ে নিলেই ম্যাচটা টাই হয়ে যায়। মুশফিক বড় শট খেললো, মাহমুদুল্লাহ খেললো। আমি বারবার ক্যাপ্টেন্সির কথা বলছি। ওই সময় মাশরাফির ম্যাসেজ পাঠানো দরকার ছিল-একটা মেসেজ-তোমরা সিঙ্গেল নাও, কোনও বড় শট খেলার দরকার নেই, আমরা ম্যাচটা বের করে নিয়েছি। আমরা জিতে যাবো”।
“এক্সপেরিয়েন্স এবং টেম্পারমেন্টের অভাবে বাংলাদেশ এ ম্যাচটা হেরে গেল। ভারত এটাকে ভাগ্য বা ভগবানের হাত যাই বলুকনা কেন। কিন্তু বাংলাদেশের এই ম্যাচটা একশোভাগের একশো ভাগ জেতা উচিত ছিল”-বলেন মি: মজুমদার।
বড় ম্যাচগুলোতে যখন এমন টানটান উত্তেজনা তৈরি হয় সেটাকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য খেলোয়াড়দের নিজেদের স্নায়ুকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হয়-বলছিলেন বোরিয়া মজুমদার।
মি: মজুমদার বলছিরেন, “এই স্নায়ুকে কন্ট্রোলে রাখাটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। মুশফিক যে চার মারলেন-দারুণ শট খেললেন কিন্তু এরপর তিনি উচ্ছ্বাস দেখানো শুরু করলেন! তখনোতো জেতেননি। আরও কিছু রানতো বাকী ছিল। আগে সেটা করুন-তারপর উচ্ছ্বাস”!
“এই যে জেতার আগেই উচ্ছ্বাসটা –এটা ছিল প্রিম্যাচিউর। লাস্ট মোমেন্টে এসে জেতা এটা কিন্তু খুবই স্নায়ুচাপের বিষয়”।
“জেতাতা একটা হ্যাবিট। বড় দলগুলোকে যতদিননা অভ্যাসের মতো হারাতে পারবেন ততদিন স্নায়ু কন্ট্রোলে আসেনা”-বলেন মি: মজুমদার।
কিন্তু পুরো ম্যাচে দারুণ পারফরম্যান্স ছিল বাংলাদেশের। বোলিং, ফিল্ডিং-সব মিলিয়ে ভারতের মাঠে ভারতকে ১৪৬ রানে আটকে ফেলা দারুণ খেলারই ফল বলে উল্লেখ করেন বোরিয়া মজুমদার।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : বিডি নিউজ