বিস্তারিত

মোদি বিরোধী বিক্ষোভে উত্তপ্ত বায়তুল মোকাররম

ছবি : সংগ্রহকৃত

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভকে কেন্দ্র করে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম এলাকায় বিক্ষোভকারী, সরকার সমর্থক ও পুলিশের ত্রিমুখী সংঘর্ষ চলছে। শুক্রবার জুমার নামাজের মোনাজাত শেষে মুসল্লিদের একাংশ মোদিবিরোধী বিক্ষোভ শুরু করলে এ সংঘর্ষ বাধে।

জানা গেছে, মুসল্লিরা মোদিবিরোধী স্লোগান দেওয়ার কিছুক্ষণ পরই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মসজিদের উত্তর পাশের ফটকে মিছিলকারীদের ওপর লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালান। প্রায় পাঁচ মিনিট ধরে তারা মিছিলকারীদের মারধর করেন। এতে বিক্ষোভকারীরা পিছু হটে মসজিদের ভেতরে ঢুকে পড়ে। কিছু সময় পর বিক্ষোভকারীরা ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের ওপর পাল্টা হামলা চালায়। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া চলতে থাকে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ নিতে পুলিশ মসজিদের দিকে টিয়ার গ্যাস ও পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোড়ে। বর্তমানে পুরো এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় গতকাল বৃহস্পতিবারও ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল হয়। সেখান থেকে ৩৩ জনকে আটক করা হয়। আটক ব্যক্তিদের মধ্যে ‘শিশুবক্তা’ হিসেবে পরিচিত রফিকুল ইসলাম মাদানীও ছিলেন। বিকেলে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এর আগে গতকাল দুপুরের দিকে মতিঝিলের শাপলা চত্বরে যুব অধিকার পরিষদের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল হয়। ওই মিছিলে যুব, ছাত্র অধিকারসহ কয়েকটি সংগঠনের কর্মীরা অংশ নেন।

 

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : নিউজ ডেস্ক