বিস্তারিত

মুম্বাইয়ের ভারসোভা কবরস্থানে ইরফানের দাফন সম্পন্ন

ছবি : সংগ্রহকৃত

চিরতরে চলে গেলেন ইরফান খান। ইরফানের মৃত্যুতে শোকে ভেঙে পড়েছে বলিউড। দেশজুড়ে লকডাউন চলছে, সব কিছু স্বাভাবিক ছন্দে থাকলে অভিনেতার অন্তিমযাত্রায় হয়তো মুম্বইয়ের রাস্তায় ফ্যানেদের ঢল নামত। কিন্তু একেবারে নির্জনে শুধুমাত্র কাছের লোকেদের চোখের সামনে থেকেই চিরবিদায় নিলেন অভিনেতা।

মুম্বাইয়ের ভারসোভা কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হল। নিয়ম মেনে দাফন সম্পন্ন করেন প্রয়াত অভিনেতার দুই ছেলে বাবিল ও অয়ন।

বুধবার কোকিলাবেন ধীরুভাই আম্বানি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ইরফান। অভিনেতাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে লকডাউনের মধ্যেও হাসপাতালে হাজির হন তাঁর বন্ধু ও সহকর্মীরা।

অভিনেতার মৃত্যুর পর পরিবার সূত্রে একটি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মুম্বাইয়ের ভারসোভা কবরস্থানে ইরফানের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত থাকবেন। প্রয়াত অভিনেতাকে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হবে। আমরা তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করি। আশা করছি তিনি আজ আরও ভাল জায়গায় আছেন। তিনি এই কঠিন লড়াইয়ে সময় শক্তিশালী ছিলেন। তাঁর মৃত্যুর পর আমাদের আরও শক্তিশালী হতে হবে।

প্রিয় অভিনেতার মৃত্যুর খবর পেয়েই তাঁর সহকর্মী থেকে বন্ধুবান্ধবরা হাসপাতালে হাজির হয়ে যান। পরিবারের সদস্যরা তো ছিলেনই। তবে সবাই মাস্ক পরেই হাসপাতালে এসেছিলেন। পরিচালক বিশাল ভরদ্বাজ ইরফানের মৃত্যুর খবর পেয়েই হাসপাতালে চলে আসেন।

লকডাউনের জন্য ভারসোভা কবরস্থানে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। পরিবারের পাঁচ সদস্য ছাড়া হাজির ছিলেন পরিচালক বিশাল ভরদ্বাজ। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্যই কবরস্থানে ইরফানের অন্যান্য বন্ধু ও সহকর্মীদের ঢোকার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

২০১৮ তে নিউরোএন্ডোক্রাইন টিউমার ধরা পরে ৫৪ বছর বয়সি অভিনেতার। এরপর একবছর বিদেশে থেকে চিকিৎসা করেছিলেন। মার্চ মাসে মুক্তি পায় ইরফানের আংরেজি মিডিয়াম ছবিটি। তখনও শরীর অসুস্থ ছিল বলে তাঁকে প্রচারে দেখা যায়নি। যদিও করোনার কবলে কয়েকদিন পরই বন্ধ হয়ে যায় এই ছবির প্রদর্শন।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক