বিস্তারিত

মুখের তিল দূর করার ঘরোয়া উপায়

ছবি : সংগ্রহকৃত

সবার শরীরেই তিল বা আঁচিল রয়েছে। কিন্তু অনেকের মুখে অতিরিক্ত তিল দেখা যায়। অতিরিক্ত তিল আবার অনেকে পছন্দ করে না। তাই এ নিয়ে অনেকে উদ্বিগ্ন থাকে।

স্বাস্থ্য ও জীবনধারাবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কিছু ঘরোয়া পদ্ধতির মাধ্যমে ঘরেই অবাঞ্ছিত তিল বা আঁচিল দূর করা যায়। আসুন, জেনে নেওয়া যাক কিছু পরামর্শ:-

রসুন

স্বাস্থ্যের পক্ষে রসুন খুবই উপকারী। এটি তিল বা আঁচিল সারাতেও খুবই কাজ দেয়। তিলের ওপর নিয়মিত রসুনের রস লাগালে তিল দূর হবে।

টি ট্রি অয়েল

এই তেলে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল ও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে। অনেকের দাবি, দিনে কয়েক বার এই তেল প্রয়োগ করলে তিল অদৃশ্য হয়ে যায়। তবে টি ট্রি অয়েল ব্যবহার করার সময় সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। এই তেল কোনোভাবেই শরীরের ভেতরে যেন না যায়।

কলার খোসা

কলার খোসায় থাকে অ্যানজাইম ও অ্যাসিড, ফলে তিল দূর হয় বলে মনে করেন অনেকে। কলার খোসা ত্বকে ময়েশ্চারাইজার হিসেবেও কাজ করে। এটা ব্যবহার করলে ত্বক সুন্দর হবে।

মধু

ত্বকের জন্য মধু খুব উপকারী। ত্বক মোলায়েম করে মধু। এতে থাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি উপাদান, যেগুলো ত্বকের জন্য অত্যন্ত উপকারী। অনেকে বিশ্বাস করেন, তিলের ওপর মধু লাগালে তিলের রং হালকা হয়ে যায়।

আলু

প্রাকৃতিক ব্লিচের কাজ করে আলু। আলুর রস ব্যবহার করলে ত্বক থেকে পুরোপুরি তিল দূর না হলেও তিলের রং হালকা হয়ে যাবে।

লেবুর রস

ত্বকে দিনে বেশ কয়েকবার লেবুর রস লাগান। ব্লিচের কাজ করবে লেবুর রস।

ক্যাস্টর অয়েল ও বেকিং সোডা

ক্যাস্টর অয়েলের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। প্রতিদিন ত্বকে নিয়ম করে লাগান। কয়েক সপ্তাহ লাগালেই আপনার ত্বক থেকে তিল দূর হয়ে যাবে। বেকিং সোডা তিলকে শুকিয়ে দেয় আর ক্যাস্টর অয়েল ত্বককে সুরক্ষা দেয়।

সংবাদের ধরন : জীবন যাপন নিউজ : নিউজ ডেস্ক