বিস্তারিত

মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের বার্ষিক পরীক্ষা হচ্ছে না

ছবি : সংগ্রহকৃত

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে এবার মাধ্যমিক স্তরের শ্রেণিগুলোর বার্ষিক পরীক্ষা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তবে শিক্ষার্থীদের জন্য ৩০ কর্মদিবসে সম্পন্ন করার মতো একটি পাঠ্যসূচি করা হয়েছে। সংক্ষিপ্ত এই পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইমেন্ট করতে হবে। এই অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ত্রিশ কর্মদিবসের একটি সংক্ষিপ্ত সিলেবাস হবে। শিক্ষকেরা প্রতি সপ্তাহের জন্য একটি করে চারটি অ্যাসাইনমেন্ট দেবেন শিক্ষার্থীদের। এ বিকল্প পদ্ধতিতে মূল্যায়ন করে শিক্ষার্থীদের পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করা হবে।

এবার অষ্টম শ্রেণির পরীক্ষা হচ্ছে না। পরীক্ষা না দিয়ে পরবর্তী শ্রেণিতে যেতে হবে তাদের। তবে তাদের ক্ষেত্রে সনদের একটি বিষয় রয়েছে। সনদের বিষয়ে পরবর্তী সময়ে জানিয়ে দেবে। আগামী বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়টি করোনা পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করছে।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি আজ বুধবার দুপুরে মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষার বিষয়ে ভার্চুয়াল প্রেস কনফারেন্সে এসব তথ্য জানান।

মাধ্যমিকে মূল্যয়নের বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা অনলাইনে বা খাতায় লিখে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে পারবে। এর বাইরে শিক্ষার্থীদের কোনো ধরনের বাসার কাজ দেওয়া যাবে না। চার সপ্তাহে শুধু চারটি অ্যাসাইনমেন্ট তৈরি করে শিক্ষার্থীরা বা অভিভাবকেরা সামাজিক দূরত্ব মেনে শিক্ষকদের কাছে পৌঁছে দেবেন। শিক্ষার্থীদের পূর্বের রেজাল্টে অনেকটা মূল্যায়ন হতে পারে। শিক্ষকেরা তো শিক্ষার্থীদের বিষয়ে ধারণা রাখেন। অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান, ব্যবসায় ও মানবিক বিভাগে কে কীভাবে যাবে সেটিও আমরা একটি সিদ্ধান্তে আসব।’

পলিটেকনিক কলেজগুলোর ডিপ্লোমা শিক্ষার্থীদের প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, যেহেতু তাদের হাতে কলমে শিক্ষার অনেক বিষয় আছে, তাহলে তারা এ সিদ্ধান্তের আওতায় আসবে না। তাদের বিষয়ে বিভিন্ন সুপারিশ করা হয়েছে, পরে তা জানানো হবে।

ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি এবং মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান অনলাইনে যুক্ত ছিলেন।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক