বিস্তারিত

ভারতে সিরাম ইনস্টিটিউটে আগুন, পাঁচজনের প্রাণহানি

ছবি : সংগ্রহকৃত

ভারতে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনাভাইরাসের টিকা উৎপাদানকারী প্রতিষ্ঠান সিরাম ইনস্টিউটের একটি নির্মাণাধীন ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত পাঁচজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে সিরাম ইনস্টিটিউটের ওই ভবনে আগুন লাগে। সিরাম ইনস্টিটিউটটি পুনের মানজিরি এলাকায় অবস্থিত। আগুন লাগার পর ইনস্টিটিউট সংলগ্ন এলাকায় কালো ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার তৎপরতার শুরু করে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

এদিকে হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়, আগুন লাগার ঘটনার তিন ঘণ্টা পর পুনের জেলা কালেক্টর রাজেশ দেশমুখ মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রশাসনিক ভবনে আগুন লাগে। বেশ কয়েক একর জায়গা জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে সেরাম। যে অংশে এদিন আগুন লাগে, তার কাছেই তৈরি হয় বিসিজি ভ্যাকসিন। কিন্তু কোভিশিল্ড মজুত করা হয় অনেকটাই দূরে। ঘটনার পরপরই সেখানে আসে দমকলের ১০টি ইঞ্জিন। কয়েক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হলে দেখা যায়, একটি ভবনের ৬ তলায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

পুণের মেয়র মুরলীধর মোহল জানিয়েছেন, দুপুর ২ টো ৫০ মিনিট নাগাদ আগুন লাগে সেরামে। তারপর ঘটনাস্থলে দ্রুত দমকলের ১০ টি ইঞ্জিন এবং দুটি ট্যাঙ্কার পাঠানো হয়। পুনের পুরনিগমের মুখ্য দমকল আধিকারিক প্রশান্ত রণপিসে জানান, ‘বাড়ির ভিতরে অনেকে আটকে ছিলেন। বেশ কয়েকটি তলায় ছড়িয়ে পড়ে আগুন। তাতেই পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।’ পাঁচ জনের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশের পরই আদর পুনাওয়ালা জানান, ‘এরকম পরিস্থিতি সামলানোর জন্য সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ায় আরও কয়েকটি আস্তানা রাখা তৈরি রেখেছিলাম।’

দমকলবাহিনী ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেছে ৯ জনকে। সম্পূর্ণ খালি করে দেওয়া হয়েছে সেরামের ওই ভবনটি। ভিতরে আরও কেউ আটকে আছেন তা এখনও খতিয়ে দেখছেন দমকল কর্মীরা। বৃহস্বপতিবারের এই ঘটনায় মঞ্জরীতে পৌঁছে গিয়েছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেও। দেশজুড়ে টিকাকরণ শুরু হয়ে যাওয়ায় টিকা তৈরি ও তা বিপুল পরিমাণে সরবরাহের জন্য সেরামের কারখানায় এখন বিপুল ব্যস্ততা। সেই কারণেই এদিন সেখানে আগুন লাগার খবরে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে দেশজুড়ে। কিন্তু ভ্যাকসিনের কোনও ক্ষতি না হলেও পাঁচজনের প্রাণ চলে গেল বিধ্বংসী আগুনে।

সংবাদের ধরন : আন্তর্জাতিক নিউজ : নিউজ ডেস্ক