বিস্তারিত

বিলিয়নিয়ার তালিকা থেকে বাদ পড়লেন “কাইলি”

ছবি : সংগ্রহকৃত

যুক্তরাষ্ট্রের রিয়েলিটি টিভি তারকা কাইলি জেনারকে সর্বকনিষ্ঠ বিলিয়নিয়ার হিসেবে গত বছর ঘোষণা দিয়েছিল প্রভাবশালী ম্যাগাজিন ফোর্বস। এবার তারাই আবার ঘোষণা দিলেন, কাইলির দাবি ‘ডাহা মিথ্যা, মনগড়া’। তিনি নাকি সত্যি সত্যি বিলিয়নিয়ার নন। তবে এসবের তোয়াক্কা করছেন না কাইলি জেনার।

২০১৯ সালের মার্চে বিখ্যাত ফোর্বস ম্যাগাজিনে বিলিয়নিয়ারদের তালিকায় উঠে আসে কাইলি জেনারের নাম। মাত্র ২১ বছর বয়সেই আত্মনির্ভরশীল নারী হিসেবে তিনি এই তালিকায় স্থান পান। কিন্তু বছর ঘুরতেই ফোর্বস বলছে, কাইলি প্রকৃতপক্ষে বিলিয়নিয়ার নয়।

কিম ও কুর্টনি কারদাশিয়ানের বোন কাইলি জেনার। তিনি ২০১৬ সালে ২৯ ডলার মূল্যের লিপ কিটস বাজারে আনেন। এই কিটসে ম্যাচিং লিপস্টিক ও লিপ লাইনার থাকে। তিনি অন্তত ৬৩০ মিলিয়ন ডলার মূল্যের পণ্য বিক্রি করেছেন। ফোর্বস জানায়, তার কোম্পানির মূল্য প্রায় ৮০০ মিলিয়ন ডলার যার শতভাগ মালিকানা তার।

শুক্রবার (২৯ মে) ফোর্বস জানায়, কাইলি দাবি করেছিল তার কসমেটিকস সে বছর ৩০০ মিলিয়ন ডলার বিক্রি হয়। কিন্তু বাস্তবে সেটা মাত্র ১২৫ মিলিয়ন ডলার হয়েছিল। বেশ শ্লেষসহকারে ফোর্বস বলে, কারদাশিয়ান-জেনার পরিবার ডাহা মিথ্যা, লুকোচুরি ও মনগড়া কথা বলেছেন।

এমনকি এটাকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দীর্ঘদিন ধরে দাবি করা বিশাল সম্পত্তির মতোই মনগড়া বলে উল্লেখ করে ফোর্বস। তবে এসবের তোয়াক্কা করছেন না কাইলি জেনার। টুইটারে তিনি লেখেন, আমার এখন কত টাকা আছে তা নির্ধারণ করার চেয়ে আরও গুরুত্বপূর্ণ অন্তত ১০০টি কাজ আমার হাতে রয়েছে।

জেনারের জন্ম হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের লস অ্যাঞ্জেলেস শহরে। কাইলি ক্রিস্টেন জেনার একজন মার্কিন রেয়ালেটি টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব, মডেল, অভিনেত্রী, উদ্যোক্তা, সামাজিক ব্যক্তিত্ব এবং সামাজিক গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব। তিনি ৯ বছর বয়স থেকে টেলিভিশন চ্যানেলের রেয়ালেটি টেলিভিশন সিরিজ কিপিং আপ উইথ দ্য কার্দাশিয়ান্স এর একজন অভিনয় শিল্পী হিসেবে সবার নিকট পরিচিত, তার নিজেস্ব ব্রান্ডের প্রসাধনী সামগ্রী এবং তার সামাজিক গণমাধ্যমে তার অতিশয় উপস্থিতি জন্য তিনি বহুল পরিচিত। ২০১২ সালে, তিনি পোশাকের ব্রান্ড পেকসান এবং তার পাশাপাশি তার বোন কেনদ্রাল কে সাথে নিয়ে একটি ভিন্ন মাত্রার বস্ত্রের ব্রান্ড তৈরী করেন, যেটির নাম দেওয়া হয় “কেনদ্রাল এবং কাইলি”। ২০১৫ সালে কাইলি তার নিজেস্ব ব্রান্ডের প্রসাধনী ব্যান্ড “কাইলি কসমেটিক্স” শুরু করেন, ঐ অ্যাপটি আইটিউন্স অ্যাপ স্টোরে ১ম স্থানে উঠে আসে।

কাইলি কসমেটিক্স

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক