বিস্তারিত

অর্থ চুরি নিয়ে তদন্ত দাবি করলেন মার্কিন কংগ্রেস সদস্যা

bdnews,bd news,bangla news,bangla newspaper ,bangla news paper,bangla news 24,banglanews,bd news 24,bd news paper,all bangla news paper,all bangla newspaper, prothom-alo, bdnews24.com ছবি : সংগ্রহকৃত

bd news,bdnews,bdnews24,bdnews24 bangla,bd news 24,bangla news,bangla,bangla news paper,all bangla newspaper,bangladesh newspapers,all bangla newspaper,bangla news paper,bangladesh newspapers,all bangla newspapers,bd news 24,bangla news today,bd news paper,all bangla news paper,bangladeshi newspaper,all bangla newspaper,all bangla newspapers,bdnews,bangla news,bangla newspaper,bangla news paper,bangla news 24,banglanews,bd news 24,bangla news today,bd news paper,all bangla news paper,bangladeshi newspaper,all bangla newspaper,all bangla newspapers

চোরেরা কীভাবে ফেডারেল রিজার্ভের অ্যাকাউন্ট থেকে অর্থ হাতিয়ে নিলো তা নিয়ে একটি তদন্তের দাবি করেছেন মার্কিন এক কংগ্রেস সদস্যা।
বার্তা সংস্থা রয়টার জানাচ্ছে, মঙ্গলবার নিউ ইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকে একটি চিঠি দিয়ে এই দাবি জানিয়েছেন ডেমোক্রেটিক দলীয় কংগ্রেস সদস্যা ক্যারোলিন ম্যালোনি।
চিঠিতে মিজ ম্যালোনি লিখেছেন দুর্বৃত্তরা কিভাবে ব্যাংকের নিরাপত্তা সুরক্ষা পাশ কাটাতে পারলো একটা বিস্তারিত তদন্তের মাধ্যমে সেটা আমাদের জানা দরকার। এর মাধ্যমে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো হ্যাকার ও সাইবার অপরাধীদের ঠেকানোর জন্য এমন একটি মানদণ্ড ঠিক করতে পারবে যাতে করে নিউ ইয়র্ক ফেডের অ্যাকাউন্ট থেকে অর্থ হাতিয়ে নেবার মতো ঘটনা ভবিষ্যতে আর না ঘটে।
তিনি বলেন তিনি ফেডারেল রিজার্ভে একটি একান্ত বৈঠক চান যেখানে ব্যাংক কর্মীদের জিজ্ঞাসা করা হবে বিদেশী কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোর অ্যাকাউন্ট তেকে অর্থ স্থানান্তরের নির্দেশ দিতে সুইফট মেসেজিং নেটওয়ার্কের উপর নির্ভর করা ঠিক হচ্ছে কি না।
এখানে উল্লেখ করা যেতে পারে বেলজিয়াম ভিত্তিক সুইফট (সোসাইটি ফর ওয়ার্ল্ডওয়াইড ইন্টারব্যাংক ফাইনান্সিয়াল টেলিকম্যুনিকেশন) মূলত ইলেকট্রনিক মাধ্যমে ব্যাংকের অর্থ স্থানান্তরের জন্য একটি বার্তা বিনিময় মাধ্যম।
বিশ্বব্যাপী গ্রহণযোগ্য এই বার্তা বিনিময় ব্যবস্থাকে নিরাপদ বলেই মনে করা হয়।
কিন্তু ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থ হাতিয়ে নেবার ঘটনার পর এই সুইফটের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

সংবাদের ধরন : বাংলাদেশ নিউজ : বিডি নিউজ