বিস্তারিত

বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনে যোগ দিলেন প্রিয়াঙ্কা-নিক

ছবি : সংগ্রহকৃত

বর্ণবাদ ইস্যুতে উত্তাল সারা বিশ্ব। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদবিরোধী চলমান আন্দোলনে যোগ দিলেন বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ও তাঁর স্বামী নিক জোনাস। সেই সঙ্গে তাঁর জর্জ ফ্লয়েড হত্যার বিচার দাবি করেছেন।

বর্ণবাদের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে পোস্ট করেছেন নিক। ‘প্রিয়াঙ্কা ও আমি ভীষণ কষ্ট পেয়েছি এই দেশে ও বিশ্বজুড়ে বৈষম্য এখন স্পষ্ট। বর্ণবাদ, গোঁড়ামি ও মতামতে বাধাদান অনেক দূর এগিয়েছে। আর চুপ থাকা একে কেবল বাড়িয়েই তোলে না, এটি চালিয়ে যেতে সাহায্য করে।

‘ব্ল্যাক লিভস ম্যাটার’ আন্দোলনে বিক্ষোভ চলছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। নিক আরো জানান, তাঁরা ‘ইক্যুয়াল জাস্টিস ইনিশিটিয়েভ’ ও ‘আমেরিকান সিভিল লিবার্টিস ইউনিয়ন’-এ অনুদান দিয়েছেন।

এখনই সময় ব্যবস্থা নেওয়ার। আমি বর্ণবাদী নই শুধু এটুকু বলা এখন আর যথেষ্ট নয়। বর্ণবাদবিরোধী হতে আমাদের কাজ করতে হবে ও কৃষ্ণবর্ণের মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে,’ যোগ করেন নিক। নিক আরো লেখেন, ‘আমরা তোমাদের সঙ্গে আছি ও তোমাদের ভালোবাসি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়াপোলিস শহরে একটি রেস্তোরাঁয় নিরাপত্তাকর্মীর কাজ করতেন ৪৬ বছর বয়সী জর্জ ফ্লয়েড। গত ২৫ মে সন্ধ্যায় প্রতারণার অভিযোগে পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় এক পুলিশ কর্মকর্তা প্রকাশ্যে রাস্তায় মাটিতে ফেলে হাঁটু দিয়ে গলা চেপে ধরেন জর্জের। এভাবে অন্তত আট মিনিট তাঁকে মাটিতে চেপে ধরে রাখা হয়।

এক প্রত্যক্ষদর্শীর তোলা ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, জর্জ ফ্লয়েড নিশ্বাস না নিতে পেরে কাতরাচ্ছেন এবং বারবার একজন শ্বেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তাকে বলছেন, ‘আমি নিশ্বাস নিতে পারছি না।

এই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয় মুহূর্তেই। প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে আসে হাজার হাজার মানুষ। প্রথম দিকে বিক্ষোভ শান্তিপূর্ণ থাকলেও ধীরে ধীরে তা সহিংসতায় রূপ নেয়।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক