বিস্তারিত

ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার সুস্মিতা সেনের বন্ধুর নিথর দেহ

ছবি : সংগ্রহকৃত

ফের নক্ষত্রপতন মুম্বইয়ে, চলে গেলেন প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী, চিত্রগ্রাহক। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৪১ বছর।

মাতুঙ্গা পুলিশ স্টেশন সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাত ৩টে নাগাদ মুম্বইয়ের মাতুঙ্গার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় শিল্পীর দেহ। বাথরুমে বাথটাবে পড়েছিল কামাতের নিথর দেহ। রাম ইন্দ্রনীল কামাতকে বাথটাবে পড়ে থাকতে প্রথম দেখেন তাঁর মা। দ্রুত নিয়ে যাওয়া হয় সিয়ন হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় মাতুঙ্গা থানায় দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর রিপোর্ট নথিভুক্ত করেছে পুলিশ। শুরু হয়েছে ঘটনার তদন্ত। ঠিক কীভাবে মৃত্যু হয়েছে রাম ইন্দ্রনীল কামাতের, তা জানতে ময়নাতদন্ত করা হবে।

রাম ইন্দ্রনীল কামাত

জানা যায়, মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন কামাত। অনুমান করা হচ্ছে, হয়তো অবসাদ থেকেই তিনি আত্মহত্যা করেছেন, যদিও কোনও সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়নি।

প্রসঙ্গত, চিত্রশিল্পী, চিত্রগ্রাহক রাম ইন্দ্রনীল কামাত অভিনেত্রী সুস্মিতা সেনের কাছের বন্ধু। মুম্বইয়ের ফ্ল্যাটে তিনি তাঁর মায়ের সঙ্গেই থাকতেন। কাচের উপর চিত্রকল্পের জন্য বিখ্যাত ছিলেন কামাত, পাশাপাশি ছিলেন খ্যাতনামা ফটোগ্রাফার। নিজেকে ‘মহালক্ষী’-র প্রিয় সন্তান বলতে ভালবাসতেন রাম ইন্দ্রনীল কামাত।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক