বিস্তারিত

প্রশ্ন ফাঁস রোধে ধীরগতিতে চলছে ইন্টারনেট

ছবি : সংগ্রহকৃত

মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে আজ সকাল থেকে ধীরগতিতে চলছে ইন্টারনেট। এতে করে কোনো সাইটে প্রবেশ করা যায়নি বা আপলোড করা যায়নি। ইন্টারনেট-নির্ভর প্রতিষ্ঠানগুলোকে সকালবেলায় কাজ থেকে বিরত থাকতে হয়।

২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পরীক্ষার দিনগুলোতে ইন্টারনেটের গতি ধীর করে দেওয়ার সরকারি নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতেই এমনটা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

এই ১২ দিন সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত আড়াই ঘণ্টা ইন্টারনেট ধীরগতিতে চলার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। গতকাল রোববার দেশের মোবাইল অপারেটর কোম্পানিগুলোকে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) এ নির্দেশ পাঠায়।

বিটিআরসি সূত্রে জানা যায়, চলমান এসএসসি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধ করতেই এ নির্দেশ দিয়েছে সরকার। নির্দেশনা অনুযায়ী, পরীক্ষামূলকভাবে গতকাল রোববার রাত ১০টার দিকে আধা ঘণ্টার জন্য ইন্টারনেট ধীর করে দেওয়া হয়।

দেশে ধারাবাহিকভাবে প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা ঘটছে। এতে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। প্রশ্নপত্র ফাঁস আটকাতে সরকার বেশ কিছু পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে, তবুও প্রশ্ন ফাঁস হচ্ছেই।

এসএসসি পরীক্ষার একেবারে প্রথম দিন থেকেই প্রশ্নপত্র ফাঁসের খবর পাওয়া যাচ্ছে। পরীক্ষা শুরুর আগেই প্রশ্নপত্রগুলো পাওয়া যাচ্ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে। এর মধ্যে বেশ কিছু শিক্ষার্থীকে প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে আটকের ঘটনাও ঘটে।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক