বিস্তারিত

প্রতিবাদে আন্দোলনরত বুয়েট শিক্ষার্থীরা

ছবি : সংগ্রহকৃত

আবরার ফাহাদকে (২১) পিটিয়ে হত্যার ঘটনার বিচার দাবিতে মোমবাতি প্রজ্বলন করে বিক্ষোভ করেছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থীরা। আজ মঙ্গলবার রাত পৌনে ৮টার দিকে এই বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা প্রজ্বলিত মোমবাতি হাতে বুয়েট ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করেছেন। মিছিলটি ক্যাম্পাস পদক্ষিণ করে শেরেবাংলা হলে এসে শেষ হয়।

আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় উত্তাল বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট)। অবিরাম আন্দোলন চলছে শিক্ষার্থীদের। দিনভর বিক্ষোভ মিছিল, অবরোধ, বুয়েটের প্রধান ফটক ও ভিসির কার্যালয়ে তালা দিয়ে অবস্থানসহ নানা কর্মসূচির পর রাতে মোমবাতি মিছিল বের করে শিক্ষার্থীরা।

চলতি শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিতসহ সাত দফা দাবি জানাচ্ছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

এদিকে সন্ধ্যা থেকে অবরুদ্ধ ভিসির কার্যালয়ের তালা খুলে দিয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।
তারা জানান, দাবি মানা না পর্যন্ত এই আন্দোলন কর্মসূচি চালিয়ে যাবেন শিক্ষার্থীরা।

এর আগে আবরার হত্যার ঘটনার ৩৭ ঘণ্টা পর ক্যাম্পাসে প্রকাশ্যে এসে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে পড়েন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি (উপাচার্য) অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম।

সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে তিনি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন। এসময় শিক্ষার্থীদের দাবি সরকারের উচ্চমহলের কাছে পৌছে দিয়েছেন বলে দাবি করেন তিনি। এছাড়া শিক্ষার্থীদের দাবি শিগগিরই পূরণ করারও আশ্বাস দেন। কিন্তু আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের কথায় আশ্বাস্ত হতে পারেননি। তারা আবার উপাচার্য কার্যালয়ের ভিতরে ঢুকিয়ে গেইটে তালা ঝুলিয়ে দেয়। এসময় বিভিন্ন হলের প্রভোস্ট সহ অন্যান্য শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগের নেতারা।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক