বিস্তারিত

পোপ ফ্রান্সিসকে স্বাগত জানিয়েছেন ‘রাষ্ট্রপতি’

ছবি : সংগ্রহকৃত

ঢাকায় পৌঁছেছেন ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস। আজ বৃহস্পতিবার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাঁকে স্বাগত জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

বিকেল ৩টার দিকে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে ঢাকায় পৌঁছান পোপ ফ্রান্সিস। এ সময় তাঁকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। বিমানবন্দর থেকেই পোপ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্মৃতিতে শ্রদ্ধা জানাতে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে যান। সেখানে শ্রদ্ধা জানানো শেষে তিনি স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে যাবেন বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল মিউজিয়ামে।

তিন দিনের সফরে ঢাকায় এসেছেন তিনি। মিয়ানমারে চার দিন সফর শেষে ঢাকা সফরে এলেন পোপ। এর আগে ১৯৮৬ সালে পোপ দ্বিতীয় জন পল বাংলাদেশ সফরে এসেছিলেন।

আজ বিকেল সাড়ে ৫টায় রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের জন্য বঙ্গভবনে যাবেন তিনি। সেখানেই সন্ধ্যা ৬টায় সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, কূটনৈতিক মিশনের কর্মকর্তাদের সামনে বক্তব্য দেবেন পোপ ফ্রান্সিস।

আগামীকাল শুক্রবার সকাল ১০টায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রকাশ্য সমাবেশে বক্তব্য দেবেন পোপ ফ্রান্সিস। বিকেল ৩টা ২০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি রয়েছে তাঁর। সেখান থেকে বিকেল ৪টায় যাবেন প্রধান গির্জা পরিদর্শনে। সেখানে তিনি বিশপ ও জ্যেষ্ঠ যাজকদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। শেষে সেখানে শান্তির জন্য আন্তধর্মীয় ও সর্বজনীন ঐক্য বিষয়ে বক্তব্য দেবেন।

সফরের তৃতীয় ও শেষ দিন শনিবার সকাল ১০টায় পোপ ফ্রান্সিস রাজধানীর তেজগাঁওয়ে মাদার তেরেসার বাসভবন পরিদর্শনে যাবেন। সেখান থেকে হলি রোজারি গির্জার যাজক, ধর্মীয় নারী-পুরুষ এবং অন্যদের সামনে বক্তব্য দেবেন তিনি। এর পর সেখান থেকে প্যারিস কবরস্থান ও প্রাচীন গির্জা ঘুরে দেখবেন। বিকেল ৩টা ২০ মিনিটে নটর ডেম কলেজের তরুণদের সামনে বক্তব্য রাখবেন পোপ ফ্রান্সিস। বিকেল পৌনে ৫টায় তিনি ঢাকা ত্যাগ করবেন।

সংবাদের ধরন : শিরোনাম নিউজ : নিউজ ডেস্ক