বিস্তারিত

পুরুষদের লেখা কম্পিউটার কোডের তুলনায় নারীরা এগিয়ে

ছবি : সংগ্রহকৃত

নারীরা কম্পিউটারের যেসব ‘কোড’ লেখেন, সেগুলো পুরুষদের লেখা কোডের তুলনায় বেশি অনুমোদন পায়। তবে নারী-পুরুষ পরিচয় অপ্রকাশিত থাকলেই এমন ঘটে। যুক্তরাষ্ট্রে নতুন এক গবেষণায় এ তথ্য মিলেছে।
কম্পিউটারে প্রোগ্রাম আদান-প্রদানের উন্মুক্ত মাধ্যম ‘গিটহাব’ ব্যবহারকারী প্রায় ১৪ লাখ প্রোগ্রামারের কাজের ওপর ওই গবেষণা চালান যুক্তরাষ্ট্রের একদল গবেষক। তাঁরা দেখতে পান, গিটহাবে কম্পিউটারের নতুন কোড বা সংকেতলিপি তৈরি বা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে নারীদের কাজই তুলনামূলক বেশি গৃহীত হয়।
ক্যালিফোর্নিয়া পলিটেকনিক স্টেট ইউনিভার্সিটি এবং নর্থ ক্যারোলাইনা স্টেট ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের গবেষকেরা মাত্র এক দিনেই (গত বছরের ১ এপ্রিল) গিটহাবে প্রায় ৪ লাখ প্রোগ্রামারের কাজ দেখেন। গিটহাবের মোট গ্রাহকসংখ্যা ১ কোটি ২০ লাখ। গবেষকেরা দেখতে পান, প্রোগ্রামের কোড তৈরি বা পরিবর্তনের ক্ষেত্রে নারীদের কাজ গৃহীত হওয়ার হার ৭৮ দশমিক ৬ শতাংশ। আর পুরুষদের কোড অনুমোদিত হয় ৭৪ দশমিক ৬ শতাংশ। আবার লৈঙ্গিক পরিচয় স্পষ্ট নয়—এমন প্রোগ্রামারদের কাজ গৃহীত হওয়ার হার তুলনামূলক বেশি। আর পরিচয় স্পষ্ট হলে নারীদের কাজ গৃহীত হওয়ার হার কমে যায়। কাজেই গিটহাবের প্রতিযোগী হিসেবে নারীরা পারদর্শিতার প্রমাণ দিলেও তাঁরা একধরনের বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন।
অন্য বিশেষজ্ঞদের মাধ্যমে গবেষণা প্রতিবেদনটি পর্যালোচনার কাজ এখনো বাকি। কম্পিউটারবিজ্ঞানী সু ব্ল্যাক বিবিসিকে বলেন, কোডিংয়ের পাশাপাশি প্রোগ্রামিংয়ের সবধরনের কাজে নারীর অংশগ্রহণ ও প্রযুক্তি-পেশায় যোগদানের হার বাড়বে বলেই মনে হচ্ছে

সংবাদের ধরন : Uncategorized নিউজ : মো : মাহবুব রানা