বিস্তারিত

পাকিস্তানে বিমান দুর্ঘটনায় মডেল “জারা আবিদের” মৃত্যু

ছবি : সংগ্রহকৃত

পাকিস্তানে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় প্রাণ হারালেন দেশটির শীর্ষস্থানীয় মডেল জারা আবিদ। শুক্রবার সন্ধ্যায় দেশটির ফ্যাশন ডিজাইনার খাদিজা শাহ এক টুইটারে এই মডেলের মৃত্যুর খবর জানান।

খাদিজা টুইটে জানান, আজকে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি জারা আবিদকে হারালেন। অসাধারণ একজন মেয়ে ছিলেন জারা, ছিলেন কর্মঠ এবং অত্যন্ত প্রফেশনাল।

তার ঘনিষ্ঠজনদের একজন টুইটে জানিয়েছেন, চাচার মৃত্যুর খবর শুনে করাচি থেকে লাহোরে গিয়েছিলেন জারা। ফিরতি পথেই বিমান বিধ্বস্তের কবলে পড়ে প্রাণ হারালেন তিনি। তার মৃত্যুতে পাকিস্তানের ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিসহ শোবিজ অঙ্গনের মানুষেরাও শোক জানাচ্ছেন।

পাকিস্তানের করাচি বিমান বন্দরের অদূরেই দেশটির রাষ্ট্রীয় এয়ারলাইন্সের ওই বিমানটি ভূপাতিত হয়। বিমানে ক্রু ও যাত্রীসহ মোট ১০৭ জন ছিলেন বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের বিমান কর্তৃপক্ষ। করাচির একটি আবাসিক এলাকায় বিমানটি ভেঙে পড়ে।

সরকারি কর্মকর্তারা এখন পর্যন্ত অন্তত ৩৭ জন মারা গেছে বলে নিশ্চিত করেছেন এবং তিনজন আরোহী জীবিত আছেন। কিন্তু অনেক হতাহত আশংকা করা হচ্ছে। কারণ উদ্ধার কাজ চলছে ।

বিমানবন্দর থেকে বিমানটি মাত্র এক মিনিটের দূরত্বে ছিল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে করাচির যে আবাসিক এলাকায় বিমানটি ভেঙে পড়েছে সেখান থেকে ধোঁয়ার কুণ্ডলি উঠছে। উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। এলাকার বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

টিভি ফুটেজ থেকে দেখা গেছে এলাকার বহু বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। একজন প্রত্যক্ষদর্শী মোহাম্মদ উজায়ের বিবিসি উর্দু বিভাগকে জানিয়েছেন বিকট আওয়াজ শুনে তিনি বাইরে বেরিয়ে আসেন।

প্রায় চারটি বাড়ি পুরো বিধ্বস্ত হয়ে গেছে। প্রচুর ধোঁয়া আর আগুন জ্বলছে। ওরা আমার প্রতিবেশি। ভয়ঙ্কর দৃশ্য।” সরু রাস্তার জন্য উদ্ধারকাজের জন্য যানবাহন এবং অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছতে বেগ পেতে হচ্ছে। প্রচুর মানুষ সেখানে জড়ো হয়েছে।

পাকিস্তান সেনা বাহিনী বলেছে তাদের দ্রুত মোকাবেলা বাহিনীর সৈন্যরা দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে উদ্ধার কাজে সহায়তার জন্য।

সংবাদের ধরন : বিনোদন নিউজ : নিউজ ডেস্ক