বিস্তারিত

নিক্সন চৌধুরীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে

ছবি : সংগ্রহকৃত

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের উপনির্বাচনের পর একটি অডিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। যেখানে ওই উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) সেখানকার স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মুজিবর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সন চৌধুরী গালিগালাজ করেছেন বলে উল্লেখ করা হয়।

ভাইরাল হওয়া ওই অডিওর বিষয়ে আজ মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশন ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা জানিয়েছেন, ফরিদপুর-৪ আসনের সাংসদ মুজিবর রহমান চৌধুরীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের এই কথা বলেন।

কে এম নূরুল হুদা বলেন, ‘ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য যে আচরণ করেছেন সেটা কাম্য নয়। তিনি নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করেছেন। আইনে যেরকম বিধিবিধান আছে, তার ব্যাপারে আইনের বিধিবিধান প্রযোজ্য হবে। এতটুকু বলতে পারি।

নির্বাচনী আইনে মামলা করার বিধান রয়েছে, আপনারা কি মামলা করবেন এ প্রশ্নের জবাবে নূরুল হুদা বলেন, যদি মামলা করার বিধান থাকে মামলাই করব। আমরা এখনও সিদ্ধান্ত নিইনি।

অন্যদিকে নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম বলেন, আইনে যা আছে, যা যা করা সম্ভব, আমরা সবকিছুই করার জন্য প্রস্তুত আছি।

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে জেলা প্রশাসককে (ডিসি) হুমকি ও নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করা কর্মকর্তাদের গালিগালাজ করার অভিযোগে উঠেছে নিক্সন চৌধুরীর বিরুদ্ধে।

সংবাদের ধরন : র্শীষ সংবাদ নিউজ : নিউজ ডেস্ক